জীবনে যে অনুভবগুলো দ্বিতীয়বার ফিরে আসে না কখনোই

মানুষ হিসেবে আমরা অনেক বেশি ভাগ্যবান। কারণ একমাত্র আমাদেরই সৃষ্টিকর্তা দিয়েছেন চিন্তা করা এবং মস্তিষ্ক খাটানোর অনেক বড় একটি আশীর্বাদ। আমরা এমন অনেক কিছুই অনূভব করতে পারি যা অন্য কোনো প্রাণীর পক্ষে করা সম্ভব নয়। আমাদের হাসি কান্না, দুঃখ বেদনা, প্রেম ভালোবাসা সব কিছু অনূভব করার ক্ষমতা রয়েছে।

কিন্তু আমরা অনেকেই এই আশীর্বাদটিকে নিতে পারি না। এমন অনেক ধরণের অনুভূতি রয়েছে যা আমরা হেলায় উড়িয়ে দিই। কিন্তু পরবর্তীতে এই অনুভূতিগুলো ফিরে পাবার জন্য অনেক চেষ্টা করি। কিন্তু এই অনুভূতিগুলো আর কখনোই ফেরত আসার নয়। তাই এই অনুভূতিগুলোকে কখনোই অবহেলা করা উচিৎ নয়।

গ্রীষ্মের লম্বা স্কুল ছুটির আগের দিনের অনুভূতি
মনে পড়ে স্কুলে থাকার সময় সেই গ্রীষ্মের লম্বা ছুটি পাবার আগের দিনের অনুভূতি? সেই শেষ ক্লাসের ছুটির ঘণ্টা? গ্রীষ্মকালীন ছুটির আগের দিনের প্রতিটি ক্লাসের সময় কাটতো দারুণ উত্তেজনার মধ্য দিয়ে। ছুটিতে কি কি করা হবে সেই চিন্তায়। সেই অনাবিল আনন্দের অনুভূতি কখনোই ফেরত পাবার নয়। কখনোই ভোলার নয় শেষ ঘণ্টার সেই সুমধুর শব্দ।

ছোট্ট বেলার সবকিছু সহজ সরল ভাবে বুঝে নেয়ার অনুভূতি
আমরা যখন ছোট থেকে বড় হতে থাকি তখন আমাদের আসে পাশের একই পরিচিত পরিবেশের সব কিছু আমাদের কাছে জটিল মনে হতে থাকে। কারণ ছোটবেলার আমরা সব কিছুই বেশ সহজ সরল ভাবে বুঝে নিতাম। আমাদের কাছে সব কিছুই সরলরেখার মতো সোজা ছিল। যতো বড় হওয়া হয় ততো সরলরেখা বাকা হতে শুরু করে। সব কিছুকে আর আগের মতো সহজ সরল ভাবে বোঝার সেই অস্বাভাবিক সুখি অনুভূতিটুকু আর ফেরত পাওয়া যায় না কখনোই।

প্রথম প্রেমে পরার অনুভূতি
প্রথম প্রেমে পরার অনুভূতিকে অবশ্য কেউই অবহেলা করেন না। কিন্ত অনেকেই প্রথম প্রেমে পরার মুহূর্তের অনুভূতিটাকে ধরে রাখতে পারেন না নিজের মধ্যে। গুরুত্বটা ঠিকমতো উপলব্ধি করার ক্ষমতা হয় না অনেকেরই। কিন্তু এই অনুভূতিটাকে আপনি কখনোই ফিরে পাবেন না। কারণ প্রথম প্রেমে পরার যে অনুভূতি তা আসলেই আর ফিরে আসার নয়।

হাতে একটিও কাজ না থাকার অনুভূতি
হাতে কোনো ধরণের কোনো প্রকারে কাজ না থাক্র অনুভূতি আসলে ব্যক্ত করার মতো নয়। কিন্তু অনেকেই এই অনুভূতিটাকে বুঝে উঠতে পারেন না। অবশ্য যারা প্রায়ই এই রকম অনুভূতি পান তাদের কথা আলাদা। কিন্তু যারা সব সময় অনেক ব্যস্ততার মধ্যে কাটান তারা কিছুটা হলেও এই অনুভূতির মর্ম বুঝতে পারেন। ছাত্র জীবনের শেষে কর্মজীবনে প্রবেশ করার পড়ে অনেকেই সেই অনুভূতি ফিরে পেতে চান। কিন্তু এই অনুভূতি ফিরে পাওয়া অসম্ভব।

অনেক সাধনার পর কোনো কাজে সফল হওয়ার অনুভূতি
মনপ্রান ঢেলে কোনো কাজ করে সেই কাজে সাফল্য পাবার যে তৃপ্তির অনুভূতি পাওয়া যায় তার মূল্য কতোখানি তা নিশ্চয়ই কাওকে বলে দিতে হবে না। সাফল হওয়ার সেই অসাধারণ অনুভূতি অনেকেই হেলায় ফেলে দিয়ে থাকেন। কারণ অনেকেই চান এর থেকে আরও বড় কিছু। কিন্তু বড় কিছু করতে পারলেও এই যে অনুভূতিটা আর কখনোই ফিরে পাবেন না।

বিরক্তিকর কর্মক্ষেত্রে রিজাইন দেয়ার পরের অনুভূতি
অনেকি নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিংবা কোনো কারণে বাধ্য হয়ে নিজের কর্মক্ষেত্রে কাজ করে থাকেন। এটি অনেক বড় একটি মানসিক চাপ। কিন্তু যখন আপনি সেই বিরক্তিকর কর্মক্ষেত্র থেকে একেবারে বেরিয়ে যাবেন তখনকার সেই মানসিকচাপ থেকে মুক্তি পাওয়ার অনাবিল আনন্দ এবং অনুভূতি দ্বিতীয়বার ফিরে পাওয়া সম্ভব নয়।

একটি ভুল মানুষের সাথে সম্পর্ক থেকে মুক্তি পাওয়ার অনুভূতি
প্রেম ভালোবাসা তো বুঝে শুনে হয় না। হঠাৎই হয়ে যায়। কিন্তু একটি সম্পর্কে জড়িয়ে পরার পর যদি দেখতে পান আপনি একজন ভুল মানুষের সাথে সম্পর্ক করেছিলেন যার ফলাফল এবং ভবিষ্যৎ আসলেই ভালো নয়, তখন যে কারোও মানসিক চাপ বেড়ে যাবে অনেক বেশি। এই ধরণের সম্পর্ক থেকে মুক্তি পাওয়ার অনুভূতিও ব্যক্ত করার মতো নয়। হ্যাঁ, কষ্ট তো লাগবেই। কিন্তু মানসিক চাপ মুক্ত এবং ভুল মানুষের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার অনুভূতি আসলেই অসাধারণ।

কোনো কিছুতে জিতে যাওয়ার অনুভূতি
কোনো কাজে নিজের যোগ্যতায় জিতে যাওয়ার অনুভূতি অনেক বেশিই অসাধারণ। কিন্তু যারা জিতে যান তাদের মধ্যে এক ধরণের নেশা কাজ করে। পরবর্তীতে সব কিছু জেতার নেশা। যার কারণে অনেকেই নিজের জিতে যাওয়ার অনুভূতিটাকে ভালো করে উপলব্ধি করতে পারেন না। কিন্তু অবহেলা নয়। নিজের জিতাকে উপভোগ করুন। নিজের অনুভূতিটাকে ধরে রাখুন। কারণ এই অনুভূতি আর কখনোই ফেরত পাবেন না।