ফেসবুক যেভাবে জীবন সম্পর্কে বাড়ায় হতাশা

কোনও কারণে মন খারাপ, সময়ই কাটছে চাইছে না? হাতে থাকা মুঠোফোনে মনের অজান্তেই স্ক্রল করতে শুরু করেছেন ফেসবুক। কিন্তু জানেন কি, ফেসবুক আপনাকে আরও বেশি বিষণ্ণ ও হতাশ করে দিতে পারে? এমনটিই মনে করেন মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞরা। সবচেয়ে জনপ্রিয় এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভ্যস্ত ও আসক্ত হয়ে পড়লে সেটা আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। ফেসবুক জীবন সম্পর্কে বাড়ায় হতাশা, করে তোলে নিঃসঙ্গ। জেনে নিন কীভাবে।

মুখোশের আড়ালে থাকতে বাধ্য করে
বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই ফেসবুকে তাদের আনন্দের মুহূর্ত পোস্ট করতে পছন্দ করেন। দুঃখ কিংবা হতাশার কথা যেন কেউ জেনে না ফেলে সে কারণেও অনেকে ইচ্ছে করে ভালো থাকার অভিনয় করেন। ফেসবুকে আসক্ত হয়ে পড়লে বাধ্য হয়ে মুখোশ পরতে হয় অনেক ক্ষেত্রেই। এটি ধীরে ধীরে জীবন সম্পর্কে হতাশ করে ফেলে। আবার অনেকেই খুব দামি রেস্টুরেন্টে খাওয়ার খবর জানান ফেসবুকে, আদতে হয়তো তিনি আছেন তার নিজের বাসাতেই। এই ধরনের অভিনয়ের কারণেও একটা পর্যায়ে এসে হতাশা কাজ করতে শুরু করে।

তুলনা করতে শেখায়, যা বাড়ায় হিংসা-বিদ্বেষ
ধরুন আপনি ভালো কোনও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে না পেরে হতাশায় ডুবে আছেন। ঠিক এমন সময় যদি ফেসবুকে দেখেন আপনারই কোনও বন্ধু কাঙ্খিত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে খুবই আনন্দিত, তবে আপনার হতাশা কিন্তু বাড়বে আরও কয়েক গুণ! এই ধরনের বিভিন্ন ঘটনায় অন্যের সঙ্গে নিজের তুলনা করে হতাশ হয়ে যান ফেসবুক আসক্তরা। অনেক সময় অন্যের দেখাদেখি এমন সব চাহিদা বাড়তে থাকে যা নিজ সামর্থের বাইরে। ফলে দিন দিন জীবন নিয়ে হতাশা বাড়তে থাকে এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের।

অতিরিক্ত ফেসবুক ব্যবহার নিঃসঙ্গ করে ফেলে
সামাজিকভাবে নিঃসঙ্গ হয়ে যান ফেসবুকে আসক্তরা। অন্তর্মুখী স্বভাব যাদের, তাদের জন্য এটি আরও ভয়াবহ ফল ডেকে আনে। সবসময় ফেসবুকের মাধ্যমেই যদি মনের ভাব প্রকাশ করতে করতে কেউ অভ্যস্ত হয়ে যায়, তবে সামাজিকভাবে সে হয়ে পড়ে একা ও হতাশ। বন্ধুদের সঙ্গে ঘোরাঘুরি কিংবা পরিবারকে সময় দেওয়ার বদলে সে ফেসবুকে সময় কাটাতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। একটি পর্যায়ে গিয়ে দেখা যায়, অবনতি হয়েছে সব সম্পর্কেই।

বিশ্বাস নষ্ট করে
ফেসবুকে কারোর আনন্দের জীবন দেখে অভ্যস্ত আপনি যদি হঠাৎ দেখেন সেগুলো সবই মিথ্যা ছিল, তবে মানুষ সম্পর্কে নষ্ট হয়ে যায় বিশ্বাস। তখন কাউকে পুরোপুরি বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়। এছাড়া হঠাৎ ফেসবুকে কারোর সঙ্গে পরিচয় হলেও তাকে পুরোপুরি বিশ্বাস করা কঠিন। ফেসবুকের কারণে অনেক সময় সম্পর্কে বাড়ে সন্দেহ ও কলহ।

বাড়ে বিড়ম্বনা
এক শ্রেণির অসাধু ব্যবহারকারীর কারণে হয়রানির শিকার হতে হয় অনেককেই। ব্যক্তিগত তথ্য ও ছবি শেয়ার করে অনেকেই পড়েন বিড়ম্বনায়।

অস্থিরতা বাড়ায়
ফেসবুকের কারণে প্রচুর বিকল্প এখন মানুষের হাতে। এই ধরনের সুযোগ জীবনে অস্থিরতা বাড়ায়।

তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন