বিয়েতে যে ৬ রকম অতিথিকে ভুলেও দাওয়াত দেবেন না !

বিয়ের দিনটি আপনার জীবনে একবারই আসবে। আর তাই আপনি চাইবেন কাছের, আপন সবাইকে নিয়েই দিনটি উদযাপন করতে। কিন্তু আপনি নিশ্চয়ই এটাও নিশ্চিত হতে চাইবেন যাতে কারো কারনে আপনার দিনটি কোনভাবেই নষ্ট না হয়। আর সেকারনেই বিয়ের দাওয়াত দেয়ার ব্যাপারে কৌশলী হোন।

আপনার অতিথির তালিকা থেকে ৬ ধরনের মানুষের নাম এক্ষুণি কেটে বাদ দিন। কেন? কারণটা আপনি এই ফিচার পড়লেই বুঝতে পারবেন!

১। যে ভদ্রমহিলা কেবল তার দিকেই সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চানঃ
যেহেতু বিয়েটা আপনার সুতরাং নিশ্চিতভাবেই আপনি চাইবেন সবার দৃষ্টি যেন আপনার দিকেই থাকে। কিন্তু এমন অনেক নারীকে দেখা যায়, যারা সব সময় অন্যের বিয়েতে এমনভাবে সাজ, পোশাক পরে, উগ্র পারফিউম ও হাইহিল পরে, উচ্চহাসির মাধ্যমে সবার মধ্যমনি হয়ে থাকার চেষ্টা করেন। ফলে অতিথিরা বর কনের চেয়ে কম বরং ঐ নারীর দিকেই বেশী আকর্ষণ বোষ করে থাকেন। ইনি হতে পারেন আপনার কলিগ, বন্ধু বা আত্মীয়। যেই হোক না কেন, এ ধরনের মানুষকে অতিথি তালিকা থেকে ছেঁটে ফেলাই ভালো।

২। প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকাঃ
আপনার হয়তো আপনার প্রাক্তন প্রেমিক/ প্রেমিকার সাথে এখন খুব বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। কিন্তু আপনার একেবারেই উচিত হবে না তাকে নিজের বিয়েতে দাওয়াত করা। হয়তো অবচেতনভাবেই তিনি সেদিন নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আপনার বিয়ের দিনটাকে নষ্ট করে দিতে পারেন। আগুন নিয়ে খেলবেন না, তালিকা থেকে তার নাম বাদ দিন। তিনি নিশ্চয়ই বুঝবেন তাকে বাদ দেয়ার কারনটি!

৩। বেশি কথা বলা আত্মীয়ঃ
রক্তের সম্পর্ক থাকলেই যে সব আত্মীয়দের দাওয়াত দিতে হবে এমনটাও কিন্তু নয়। বেশী কথা বলা আত্মীয়স্বজন হয়তো অন্যান্য অতিথিদের সামনে মুখ ফসকে আপনার সম্পর্কে এমন কোন একটা কথা বলে ফেলবেন, যার জন্যে বেশ পস্তাতে হতে পারে আপনাকে। তাই খেয়াল রাখুন।

৪। সমস্যাদায়ক সহকর্মীঃ
একসাথে চাকুরি করেন বলেই কিন্তু সব সহকর্মীকে বিয়ের দাওয়াত দেবার কোন দরকার নেই। এমন কিছু সহকর্মী যারা আপনাকে নানাভাবে অফিসে ক্ষতি করার চেষ্টা করেন, অফিস পলিটিক্স করেন, এদের কোনভাবেই বিয়েতে দাওয়াত দেবার মত ভুলটা করতে যাবেন না। অন্যান্য অতিথিদের সাথে আপনার সম্পর্কে বাজে কথা বলতে মাত্র কয়েক মিনিট সময় লাগবে এদের!

৫। যারা আপনার বিয়ের পক্ষে নয়ঃ
এমন অনেক মানুষ যারা হয়তো আপনার এই বিয়ের পক্ষে ছিলো না। তা যে কারনেই হোক। সমঝোতায় আসতে পারেন বাঃ না পারেন, চেষ্টা করুণ এদের তালিকায় না রাখার। হুট হাট কখন কি ছিদ্রান্বেষী কর্মকান্ড করে আপনার বিয়েটাই পন্ড করে দেবেন এরা কে জানে!

৬। অতিরিক্ত বাচ্চাকাচ্চাঃ
আপনার পরিবারের ইচ্ছেতেই হয়তো বিয়ে হচ্ছে! কিন্তু আপনি নিশ্চয়ই জানেন কোন একটা স্থানে অনেক বাচ্চাকাচ্চা একসাথে হলে তাদের নিয়ন্ত্রণ করাটা দেশ কঠিন হয়ে যায়। আপনি নিশ্চয়ই চাইবেন না একগাদা বাচ্চা কাচ্চা এটা ওটা ফেলে, ছুড়ে, চিৎকার করে আপনার বিয়ের দিনটা বেশ ঝামেলাদায়ক করে ফেলুক। তাই বিয়ের পরিসর ছোট হলে চেষ্টা করুন লিস্টে খুব বেশী বাচ্চাকাচ্চা না রাখতে।

আপনার বিয়ের দিনটি হোক আপনার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর দিন। খুব আছের মানুষদের ভালোবাসায় কাটুক দিনটি। ভালো থাকুন!