দেশে রোষের মুখে লঙ্কানরা

আফগানিস্তানের কাছে হেরে এশিয়া কাপ থেকে বিদায় নেয়ার পর নিজ দেশে সংবাদমাধ্যম ও সমর্থকদের রোষের মুখে এখন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। সোমবার ৯১ রানে ম্যাচ জিতে লঙ্কানদের বিদায় করে আফগানরা।

দলের পারফরম্যান্সের ব্যাপক সমালোচনা করেছে শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম। বেসরকারি ইংরেজি দৈনিক ‘ডেইলি মিরর’ শিরোনাম করেছে ‘দ্য ফ্লপ অব এশিয়া’। আর সরকারি ইংরেজি পত্রিকা ‘ডেইলি নিউজের’ শিরোনাম ‘চরম দুরবস্থা’। এক্ষেত্রে তারা ‘নাদির’ শব্দ ব্যবহার করেছে। যেটি দ্বারা একজন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের খারাপ অবস্থার সর্বনিম্ন অবস্থা বোঝায়।

ওই দুই পত্রিকা ছাড়াও প্রভাবশালী আরেক দৈনিক ‘দ্য আইল্যান্ড’ তাদের শিরোনাম করেছে ‘শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের জন্য দুঃখজনক রাত’।

এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে ১৩৭ রানে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয় শ্রীলঙ্কা। তাই ‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জয় ছাড়া বিকল্প ছিল না তাদের। এমন ম্যাচেও আগের চেহারায় ধরা দেয় লঙ্কান দল। আফগানদের ২৪৯ রানের জবাবে তারা ম্যাচ হারে প্রায় ১০০ রানে (৯১ রানে)।

২০১৭’র জানুয়ারি থেকে সোমবার পর্যন্ত ৪০টি ম্যাচের মধ্য ৩০টিতেই হেরেছে শ্রীলঙ্কা। দ্য মিরর তাদের প্রতিবেদনে লিখেছে, আগামী বছর ইংল্যান্ড ও ওয়েলস বিশ্বকাপের আগে দলের পারফরম্যান্স মোটেও ভালো হয়নি।

পত্রিকাটি আরো লিখেছে, ১৯৯৬’র বিশ্বকাপজয়ীদের এখন দ্রুততার সঙ্গে আত্ম-অনুসন্ধানে নামা উচিত। এজন্য দরকার হলে বড় ধরনের পরিবর্তনও করা উচিত।

সংবাদমাধ্যমের মতো সমর্থকদের হতাশা লক্ষ্য করা গেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও। হতাশার সঙ্গে অনেকে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন এই মাধ্যমে।

একজন যেমন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমরা অন্তত ভারতের প্রথম ম্যাচ খেলা পর্যন্ত এশিয়া কাপে থাকতে পারতাম।’ নিজেদের প্রথম ম্যাচে মঙ্গলবারই হংকংয়ের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে ভারত।

সূত্র: