শ্বশুরবাড়ির সবাইকে খুশি করার সবচাইতে সহজ ৫টি কৌশল

অনেকের কাছেই বিয়ে করাটা অনেক বেশি ঝামেলা এবং যন্ত্রণার মনে হয় শুধুমাত্র শ্বশুরবাড়ির মানুষজনের সাথে ব্যবহার এবং মিশতে পারার কারন নিয়ে। কী করলে শ্বশুরবাড়ির মানুষজন খুশি থাকবে, কীভাবে কথা বললে তাঁরা আপন করে নেবেন এই সব জিনিস নিয়ে অনেকেই চিন্তায় থাকেন। মেয়েরা এই চিন্তায় সব চাইতে বেশি ভুগে থাকেন।

কারণ নিজের বাবার ঘর ছেড়ে যখন শ্বশুরবাড়ি চলে আসেন তখন শ্বশুরবাড়ির লোকজন নিয়েই তাদের থাকতে হয়। ছেলেরাও অনেকে এই ঝামেলায় পড়েন তবে মেয়েদের তুলনায় তা বেশ কম। কিন্তু একটু কৌশল জানলেই এই সমস্যা থেকে চিরতরে উদ্ধার পাওয়া সম্ভব। জানতে চান সেই কৌশলগুলো? চলুন তবে দেখে নেয়া যাক।

সবার সাথে ভালো যোগাযোগ রাখুন
যোগাযোগ রাখা হলো সব চাইতে কার্যকরী এবং পরীক্ষিত ভাবে প্রমাণিত কৌশল। আপনি যদি সকলের সাথে ভালো করে এবং ভালো ভাবে যোগাযোগ রাখতে সক্ষম হন তবে আপনি শ্বশুরবাড়ির সকলের মন খুব সহজেই জয় করে নিতে পারবেন। বিশেষ করে শ্বশুর-শাশুড়ির আত্মীয়স্বজন যাদের মতামত তাদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকে। আপনি যদি ভালো করে তাদের মন জয় করে নিতে পারেন তবে আপনাকে আর চিন্তা করতে হবে না এই ব্যাপারে।

আড়ালে কথা বলবেন না
নিজের শ্বশুরবাড়ির সম্পর্কে আড়ালে কথা বলবেন না কারো কাছে। আপনার কাছে যদি কোনো বিষয় খটকা লেগে থাকে তবে তা সরাসরি বলে পরিস্কার করে নেবেন। আপনি বলবেন এক ধরনের কথা কিন্তু তা হয়তো তাদের কানে পৌঁছুবে অন্যভাবে। এতে করে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হবে এবং আপনি চক্ষুশূল হয়ে পরবেন। অনেকেই এই কাজটি করেন না এই ভেবে যে সরাসরি বললে অনেকে অন্যকিছু মনে করে থাকতে পারে। কিন্তু বিশ্বাস করুন এটিই অনেক ভালো পদ্ধতি। এতে আপনি নিজেকে সকলের কাছে পরিষ্কারভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন।

নিজের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বলুন
অনেক সময় আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা না জানার কারনে শ্বশুরবাড়ির মানুষজনের কাছে আপনার গতিবিধি তেমন পরিষ্কার না হওয়ার কারনেও শ্বশুরবাড়ির মানুষজন অখুশি হয়ে যান। তাই বিপদে একেবারেই পরতে যাবেন না। আপনার ভবিষ্যৎ সম্পর্কে কি চিন্তা ভাবনে এবং কি কি করতে চান তা সুযোগ পেলেই তুলে ধরুন সকলের সামনে। এতে তাঁরা আপনাকে ভালো করে বুঝতে পারবেন। ফলে আপনি নিজেই তাদের খুশি হয়ার সুযোগটি করে দিতে পারবেন।

সকলের জন্য উপহার
অনুষ্ঠান কিংবা কোনো উৎসবে উপহার দিতে একেবারেই ভুল করবেন না। উপহার এমন একটি জিনিস যা যে কোনো বয়সের মানুষের মন জয় করার জন্য যথেষ্ট। উপহার পেলে সকলেই খুশি হয়ে যান। তবে উপহার কেনার সময় অবশ্যই সকলের পছন্দের ব্যাপারে লক্ষ্য রাখবেন। এবং পছন্দের উপহারটি দেয়ার চেষ্টা করবেন।

সাহায্য করুন
মানুষ তাকেই মনে রাখে এবং পছন্দ করেন যিনি বিপদের সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। মানুষ হিসেবে এমনিতেই বিপদে পড়লে আমরা একে অপরকে সাহায্য করে থাকি। কিন্তু এখানে কথা হচ্ছে শ্বশুরবাড়ি নিয়ে। এই ক্ষেত্রে একটু বেশিই সতর্ক থাকা প্রয়োজন। বিপদে আপদে অবশ্যই যতো দ্রুত সম্ভব সাহায্যের জন্য এগিয়ে যাওয়া উচিৎ।