ভালোবাসা প্রকাশ করুণ ১০ বিদেশী ভাষায়

বলা হয়ে থাকে ভালোবাসা স্বার্থকতা পায় প্রকাশে। আর তাই প্রেমিক-প্রেমিকারা তাদের ভালবাসার মানুষটিকে বিভিন্ন উপায়ে তাদের মনের কথা জানিয়ে থাকেন। ভালোবাসার এই যাত্রা আরও রোমাঞ্চকর করে তুলতে ভালবাসার কথা বিদেশী ভাষায় বলতে পারেন। প্রতিদিনকার একই ‘ভালবাসি’র থেকে বেশ বৈচিত্র্যও দেবে বিদেশী ভাষার শব্দগুলো। এমনই ১০টি শব্দ জেনে নিন এখান থেকে।

১) কুটচ

এই শব্দটি এসেছে ইংল্যান্ডের ওয়েলস রাজ্যের ওয়েলস ভাষা থেকে। এর অর্থ জড়িয়ে ধরা বা আলিঙ্গন করা। তবে এই শব্দটির মধ্যে আলিঙ্গন করার বিশেষ এক দিক তুলে ধরা হয়েছে। কুটচ মানে শুধুই জড়িয়ে ধরা নয় বরং এই শব্দের অর্থ একটি নিরাপদ আলিঙ্গন যা স্বর্গের মতো ভালোবাসা দিয়ে পূর্ণ।

২) ইউ বার্নি

এটি একটি আরবি শব্দ। ইংরেজিতে এটিকে ‘ইউ বারি মী’ বলা হয়। বেশ দীর্ঘ সময় ধরে বিবাহিত আছেন এমন দম্পতিদের এই শব্দটি দিয়ে বোঝানো হয়। এর আরও একটি অর্থ এই যে, এই শব্দের মাধ্যমে আপনি আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে বোঝাবেন যে, আপনারা কেউ কারও থেকে আলাদা হবেন না।

৩) ফর রেল স্কেট

নরওয়েজিয়ান এই শব্দটির মাধ্যমে ভালবাসার অনুভূতিকে বোঝানো হয়। অর্থ্যাত আপনি আপনার সাথীকে বলছেন যে, আপনি ভালোবাসা অনুভব করছেন।

৪) ফ্লেকাচো

স্প্যানিশ এই শব্দটির অর্থ সৌলমেট বা আত্মার সঙ্গী। কারও সাথে আপনার আত্মার সম্পর্ক আছে মনে হলে তাকে এটি বলুন।

৫) ওডাল

ভালবাসার মানুষটির সাথে আমরা অভিমান করি না? বা কোন ঝগড়ার পর এক ধরনের ভাব নিয়ে থাকি না যে, সে বুঝি এসে আমার অভিমান ভাঙ্গাবে? এটিকেই তামিল ভাষায় ওডাল বলে।

৬) ভিরাগ

ভিরাগ হিন্দী শব্দ। বাংলাদেশ এটিকে বিরাগ বলে। কাছে মানুষটি দূরে চলে গেলে যে বেদনাদায়ক অনুভূতি হয় সেটিকেই ভিরাগ বলে।

৭) ইক সুয়ারপক

আমাদের ভালোবাসার ডাকে সাড়া দিয়ে কেউ আমাদের কাছে আসবে এটা জানার পর যে অপেক্ষার সময় কাটে সেই সময়ে যে অনুভূতিটা হয় তাকেই গ্রীনল্যান্ডের ভাষায় বলা হয় ইক সুয়ারপক। তলপেটের ওপর যদি একটা প্রজাপতি উড়তে থাকে যে সুড়সুড়ে অনুভূতি হয় সেটিই বোঝানো হয় এই ভাষায়।

৮) ক্যাফুনেহ

পর্তগীজ এই শব্দটির মাধ্যমে প্রিয়জনের চুলে আঙ্গুল বোলানোকে বোঝায়। তাই এখন থেকে যদি চান যে আপনার ভালোবাসার মানুষটি আপনার চুলে হাত বুলিয়ে দিক তাহলে তাকে বলুন – ক্যাফুনেহ (!)।

৯) মামিলাপিন ইয়াতাপি

ভালোবাসার মানুষ দুইজন একে অপরের দিকে তাকিয়ে থেকে দুই জনই কিছু একটা করতে চায়। তবে প্রথম পদক্ষেপ কে নেবে সেই দ্বিধায় আছে তারা। দুই জনই চাচ্ছে তাঁর সঙ্গীই প্রথমে এগিয়ে আসুক। আবার হয়তো নিজেও এগিয়ে যেতে চায়। কিন্তু দ্বিধার পিছুটান সরে না। ভালোবাসার এই অবস্থাকে চিলির ভাষায় মামিলাপিন ইয়াতাপি বলে।

১০) ঘে ঘিল

প্রিয় মানুষটিকে সুড়সুড়ি দেওয়া বা তাঁর শরীরের কোথাও রগড়ে দেওয়াকে ফিলিপাইনে ঘেঘিল বলে। দেশটির ট্যাগলগ অঞ্চলে এই শব্দটি ব্যবহৃত হয়। ইংরেজিতে শব্দটিকে ‘গিগল’ বলে।

সূত্রঃ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস