‘চরিত্রহীন’ এ যৌনতার ছড়াছড়ি!

চরিত্রহীন’-এ সেক্সের ছড়াছড়ি থাকতেই পারে। কারণ নাম যে চরিত্রহীন’ ‘হজম করা কঠিন। চেষ্টা করুন…।’ বক্তব্য অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের। পড়ে কী মনে হচ্ছে? বড় উদ্ধত এ বক্তব্য? কিন্তু এমন কথা কেন বললেন সায়নী? তাও আবার সোশ্যাল মিডিয়ায়।

কারণ মুক্তি পেল দেবালয় ভট্টাচার্য পরিচালিত ওয়েব সিরিজ ‘চরিত্রহীন’-এর ট্রেলার। যেখানে যৌনতা এসেছে খুব স্বাভাবিক নিয়মেই। কিন্তু সকলে তা সহজ ভাবে মেনে নিতে পারবেন তো? সেই ভাবনা থেকেই সায়নীর সোশ্যাল ওয়ালে এই বার্তা বলে মনে করছেন ইন্ডাস্ট্রির একটা বড় অংশ।

দেবালয়ের কথায়, ‘দিস ইজ মাই টেক অন শরত্চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘চরিত্রহীন’। এত বছর ধরে এত গুরুত্বপূর্ণ একটা লেখা রয়েছে। কিন্তু এটা নিয়ে বাংলায় কোনও ছবি হয়নি। আমার মনে হল ওয়েবটাই সঠিক মাধ্যম যেখানে ইন্টারপ্রেট করতে পারব। কিরণময়ী, সরোজিনী, সাবিত্রী, হারাণ— প্রধান চরিত্ররা সকলেই রয়েছে। এদের এই সময়ের প্রেক্ষাপটে খুঁজব।’

সায়নী আগেই বলেছিলেন, ‘দেবালয় খুব যত্ন করে, এসথেটিকালি কাজটা করেছে। এটাই ‘চরিত্রহীন’-এর উদ্দেশ্য ছিল যাতে বডি এক্সপোজারের বিষয় যদি গল্পের প্রয়োজনেও আসে তবে সেটা খুব এসথেটিকালি শুট হবে। আমাদের ডিওপি ইন্দ্রনাথও চমৎকার কাজ করেছেন। দর্শক চরিত্রহীন দেখলেই বুঝতে পারবেন, এটা কোনও সেক্স ওয়েব সিরিজ নয়। অযথা যৌনতা নিয়ে বাড়াবাড়ি করা হয়নি।

দেবালয় এত ভাল ডিরেক্ট করেছে! আমাকে বলত, তুই নিজেকে ভাঙ, বদলা। যেগুলো তোর সিগনেচার সেগুলো একদম বদলে ফেল। আমায় খুব হেল্প করেছে এই কাজটায়।” ‘চরিত্রহীন’ সায়নীর পাশাপাশি সৌরভ দাস, গৌরব চট্টোপাধ্যায়, অঙ্কিতা চক্রবর্তী, নয়নার অভিনয়ে সমৃদ্ধ।