আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশে থাকতে পারে দু’টি পরিবর্তন

অলিখিত সেমিফাইনালে সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে জিতলেই এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠে যাবে মাশরাফি বাহিনী। আজ বিকাল সাড়ে ৫টায় মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান। গুরুত্বপূর্ণ এ ম্যাচের আগে দেখে নেওয়া যাক পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের অতীত ইতিহাস কি বলছে?

অতীত ইতিহাস পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডেতে খুব একটা ভালো নেই টাইগারদের। এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে পাকিস্তানের সাথে ৩৫ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। যেখানে ৩৫ বারের মোকাবেলায় পাকিস্তানের বিপক্ষে মাত্র ৪ বার জয় পেয়েছে বাংলাদেশ আর হেরেছে ৩১ বার। তবে আগের বাংলাদেশ আর এখনকার বাংলাদেশ এক কথা নয়। এখনকার বাংলাদেশ পাকিস্তানকে হারাতে সক্ষম।

তবে অতীত এই ইতিহাস দেখে হতাস হবার কিছু নেই। কেননা ৪ জয়ের মধ্যে সর্বশেষ তিনবারের মোকাবেলায় পাকিস্তানীদের তিন ম্যাচেই হারিয়েছে টাইগাররা।

২০১৫ সালের সর্বশেষ তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ঘরের মাঠে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করেছিল মাশরাফি বাহিনী। যেখানে তামিম, সৌম্য আর মুশফিকুর রহীম ব্যাটহাতে শক্তভাবে দমন করেছিলেন পাকিস্তানি বোলারদের। আর দুর্দান্ত বোলিং করে পাকিস্তানী ব্যাটসম্যানদের দাড়াতেই দেননি মাশরাফি-সাকিবরা।

এদিকে, আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে সেরা একাদশ নিয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। তবে একাদশে আসতে পারে দুটি পরিবর্তন। অফ ফর্মে থাকা নাজমুল হাসান শান্ত পরিবর্তে ওপেনিং এ আবার দেখা যেতে পারে সৌম্য সরকারকে। স্পিনাল নাজমুল ইসলাম অপুর পরিবর্তে একাদশে আবারো জায়গা হতে পারে রুবেল হোসেন।

আর বোলিংয়ে সাকিব-মাশরাফিদের সাথে থাকছে মোস্তাফিজের দুর্দান্ত কাটার। তাই পরিসংখ্যানে পিছিয়ে থাকলেও বেশ আত্নবিশ্বাসের সাথে মাঠে নামবে টাইগাররা সেটি বলাই যায়।

আজকের ম্যাচের জন্য বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ : সৌম্য সরকার, লিটন কুমার, মোহাম্মদ মিঠুন, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু/রুবেল এবং মোস্তাফিজুর রহমান।