যে চিন্তায় ৬ রাত ঘুমাতে পারেনি পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ

গত রাতে বাংলাদেশের কাছে ৩৭ রানে হেরে এশিয়া কাপের ১৪তম আসর থেকে ছিটকে পড়েছে পাকিস্তান। পুরো টুর্নামেন্টে পাঁচ ম্যাচে মাত্র ২টি জয় পেয়েছে তারা। হংকং-আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিতলেও, ভারতের কাছে দু’বার ও বাংলাদেশের একবারের হারের লজ্জা পায় আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফির শিরোপা জয় করা পাকিস্তান। তাই এবারও এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠতে পারেনি তারা। দলের এমন পারফরমেন্স হতাশ করেছে পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ দলের বাজে পারফর্মেন্সের চিন্তায় ৬ রাত ঘুমাতে পারেননি বলে জানা যায়।

এশিয়া কাপে দলের ব্যর্থতা নিয়ে সরফরাজ আহমেদ বলেন, আপনি যখন চাপ সামলে নিতে পারবেন না তখন কী করা উচিত। যদি আমি বলি যে, আমি ৬ রাত ঘুমাতে পারিনি তাহলে কেউ আমার কথায় বিশ্বাস করবে না।

ম্যাচ শেষে হতাশা কণ্ঠে সরফরাজ বলেন, ‘অবশ্যই ভালো লাগার মত সময় এটি না। আমাদের পারফরমেন্স খুবই খারাপ ছিলো। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং তিন বিভাগেই আমরা খারাপ করেছি। এভাবে খেললে ভালো ফল পাওয়া যায় না। প্রতিপক্ষের সাথে লড়াই করতে হলে তিন বিভাগে দুর্দান্ত হতে হবে দলকে। প্রতিটি ম্যাচেই ব্যাটসম্যানদের বড় ইনিংস খেলার জন্য লড়াই করতে হয়েছে। ফিল্ডাররা নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি। সব বিভাগেই আমরা ব্যর্থ হয়েছি।’

পুরো টুর্নামেন্টে সেরা পাঁচ ব্যাটসম্যানের মধ্যে নেই পাকিস্তানের কোন খেলোয়াড় । ব্যাট হাতে সরফরাজ নিজেও ব্যর্থ। ৫ ম্যাচের ৪ ইনিংসে ৬৮ রান করেন তিনি। তাই দলের খারাপ পারফরমেন্সের দায়টা নিজের কাঁধে নিচ্ছেন সরফরাজ। পাকিস্তান অধিনায়ক বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে আমি ভালো করতে পারিনি। সেই বিবেচনায় আমি মনে করি, নিজে ভালোভাবে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারিনি। আমাদের আরও উন্নতির প্রয়োজন রয়েছে।’

নিজের দলের পারফরমেন্সে হতাশ হলেও গত রাতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে টাইগার দলের প্রশংসা করেছেন সরফরাজ। বিশেষ করে মুশফিক ও মিথুনের ইনিংসের ভুয়সী প্রশংসা করে পাকিস্তান অধিনায়ক বলেন,‘ শুরুতেই তিন উইকেট হারিয়ে ফেরার পরও মুশফিক-মিথুন জুটি যেভাবে ব্যাটিং করেছে, অবশ্যই তা প্রশংসনীয়। মুলত এ জুটির কারণেই আমিরা ম্যাচ হেরেছি।’