এশিয়া কাপের সেরা একাদশ!

এশিয়া কাপের ১৪তম আসর শেষ হয়েছে। আসরের দুর্দান্ত পারফরমেন্স করেছেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। এদের মধ্যে রয়েছেন ভারতের রোহিত শর্মা, বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম ও মোস্তাফিজুর রহমান এবং আফগানিস্তানের রশিদ খান। এশিয়া কাপে ব্যাটিং ও বোলিংয়ে এই সেরাদের নিয়ে একাদশ তৈরি করা হলে কেমন হবে সেটি-

রোহিত শর্মা : এবারের এশিয়া কাপের আসরের সেরা ওপেনার ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। ব্যাট হাতে অসাধারণ ফর্মে রয়েছেন তিনি। এক শো’র ওপর গড়ে রান করেছেন ৩১৭।

শিখর ধাওয়ান : ইংল্যান্ড সফরে তেমন কিছু করতে না পারলেও এশিয়া কাপে ব্যাট হাতে ৫ ম্যাচে ৩৪২ রান করেছেন শিখর। স্ট্রাইক রেট ১০২।

মুশফিকুর রহিম : এবারের আসরে ইনজুরি নিয়েও দুর্দান্ত পারফরমেন্স করেছন বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম। তার সেরা ১৪৪ রান। ৫ ম্যাচে সংগ্রহ ৩০২ রান।

শোয়েব মালিক : এশিয়া কাপে বেশ ভালই ধারাবাহিকতা দেখা গেছে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শোয়েবের মধ্যে। অনেক ম্যাচে একা লড়াই করেছেন। টুর্নামেন্টে তার রানের গড় ৭০.৩৩।

হাসমাতুল্লাহ সিদ্দিকি : ২৩ বছর বয়সী এই আফগান মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানটি বেশ নজর কেড়েছেন এ বার। পাঁচ ম্যাচে ২৬৩ রান করেছেন। গড় ৬৫.৭৫।

কেদার যাদব : ভারতের এই অলরাউন্ডার এবার নজর কেড়েছেন। ব্যাট-বল হাতে তাবড় ব্যাটসম্যানদের ঘাবড়ে দিয়েছেন।

মোহাম্মদ নবি: বছর তেত্রিশের এই আফগান ক্রিকেটার এবার কিন্তু ভালই চমক দেখিয়েছেন। ব্যাটের পাশাপাশি বল হাতেও ভাল পারফর্ম করেছেন।

রশিদ খান : নামটাই যেন বিস্ময় তৈরি করেছে। আইপিএল থেকে বিস্ময় শুরু হয়েছিল, এশিয়া কাপেও তার ঝলক দেখা গেল। ১০ উইকেট নিয়ে এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের সেরা বেলার তিনিই।

মোস্তাফিজুর রহমান : বাংলাদেশের হাসিমুখের এই ঘাতক এবারের এশিয়া কাপে প্রতিপক্ষ শিবিরে ত্রাস সৃষ্টি করেছেন। নজর কেড়েছেন সবার। ভারতের বিরুদ্ধে ফাইনালে দশ ওভারে মাত্র ৩৮ রান খরচ করে তুলে নিয়েছিলেন দুই উইকেট। ৫ ম্যাচে শিকার করেছেন ১০টি উইকেট। সেরা বোলারদের তালিকায় আছেন দুই নাম্বারে।

কুলদীপ যাদব : ভারতের এই বোলার ১০ উইকেট শিকার করেছেন। সেরা বোলিং ৪৫ রানে ৩ উইকেট।

জসপ্রীত বুমরা : মাঝে কিছু দিন চোটের জন্য দলের বাইরে ছিলেন বুমরা। তবে ফিরে এসেই চমক দেখিয়েছে এশিয়া কাপে। উইকেট তুলেছেন ৭টি। সেরা বোলিং ৩৭ বলে ৩ উইকেট।