‘নোংরা’ মন্তব্যের জবাবে যা বললেন তাসকিন

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদ প্রথম সন্তানের বাবা হয়েছেন শনিবার। নিজের সেই খুশি সবার সঙ্গে শেয়ার করতে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। স্ত্রী ও সদ্যজাত ছেলের সঙ্গে একটি সেলফি তুলে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে পোস্ট করার পর থেকে তাসকিনকে অভিনন্দন জানান ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

‘আলহামদুলিল্লাহ, মাই বয়’ লেখা তাসকিনের ওই পোস্টে অনেকে আবার নোংরা মন্তব্যও করেন। তার বিয়ে ও সন্তানের জন্ম নিয়ে নানা ধরনের ‘কুরুচিপূর্ণ’ প্রশ্ন তোলেন অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী। তাসকিনের স্ত্রী বিয়ের আগেই গর্ভবতী ছিলেন কি না- এমন নোংরা প্রশ্নের কড়া জবাব যদিও অনেকেই ফেসবুকেই দিয়েছেন। তারপরও তাসকিন সবার উদ্দেশে ওই পোস্টে একটি মন্তব্য করেছেন।

তাসকিনের সেই মন্তব্যটি এখানে তুলে ধরা হলো, ‘সবার উদ্দেশ্যে একটা কথা বলি, কেউ মনে কিছু নিয়েন না, আমার বিয়ে হইছে ১১ মাস। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকে এসেই বিয়ে করলাম ৩১ অক্টোবর এবং বিয়ের বয়স হলো ১১ মাস, সাউথ আফ্রিকা ছিলাম ৪৮ দিন, সব মিলিয়ে হলো ১২ মাস ১৮ দিন। আমার পুত্র সন্তান হইলো ৯ মাস ২৭ দিনে..যদি বিয়ের আগে আমার স্ত্রী প্রেগন্যান্ট হইতো তাহলে আমার বাচ্চা বিয়ের ৬ মাস এর মধ্যেই দুনিয়াতে থাকত..যাই হোক যাদের ভুল ধারণা ছিল আমাদের প্রতি; তাদের জন্য এই মেসেজটি। ধন্যবাদ!’