বাইরে কোথাও খেতে গেলে যে বিষয়গুলো অবশ্যই মনে রাখবেন

দারুণ একটি কনভেনশন হল অথবা রেস্টুরেন্ট। পরিপাটি পোশাকের মানুষজন এসেছেন অনুষ্ঠানে। বন্ধু বান্ধব সহ খেতে বসলেন। খাবারের টেবিলে বসার পর দেখা গেল খাবার খাওয়ার যে ন্যূনতম আদব কায়দা রয়েছে তা জানেন না আপনি। এবার বলুন আশেপাশের মানুষজন আপনার সম্পর্কে কী ভাববেন? কিংবা আপনি অন্য একটি মানুষকে এভাবে খেতে দেখলে নিজে কী ভাববেন? অবশ্যই মনে মনে বলবেন, ‘কি আজব, ভদ্রতা জানে না’।

তাহলে কী করবেন? অনেক সময় টেবিল মান্যার না জানার কারণে অনেকেই লজ্জাকর পরিস্থিতির শিকার হয়ে থাকেন। তাই প্রত্যেকের টেবিল মান্যার জানা উচিৎ। এবং প্রত্যেকের এই সম্পর্কে জ্ঞান থাকা উচিৎ। এতে করে এড়িয়ে যেতে পারবেন অনেক অস্বস্তিকর পরিস্থিতি। চলুন তবে দেখে নেয়া যাক খাবার টেবিলে কী কী করবেন এবং করবেন না।

(১) খাওয়ার জন্য টেবিলে বসেই খাওয়া শুরু করে দেবেন না। যেই বন্ধুর পার্টি তার জন্য অপেক্ষা করুন। আর যদি কোনো আড্ডা হয়ে থাকে তবে টেবিলে বসা সকলের সাথে একসাথে খাবার খাওয়া শুরু করুন।

আরও পড়ুন: যে আট কথায় চরম বিরক্ত হয়ে যান বিবাহিত মহিলারা

(২) টেবিলে ন্যাপকিন থাকলে তা বসে কোলের ওপর বিছিয়ে নিন, এতে করে জামা কাপড়ে দাগের হাত থেকে রক্ষা পাবেন। এবং ছিটকে পড়া খাবার টেবিল, মেঝে বা কাপড়ে পরবে না। টিস্যু থাকলে খাবার মাঝে টিস্যু দিয়ে মুখ মুছে নেবার কাজটি করুন।

(৩) এমন কোনো পার্টি যেখানে হাত দিয়ে খাওয়া হয় না সেখানে গিয়ে ভুলেও হাত দিয়ে খাবেন না। কাঁটা চামচ, চামচ এবং ছুরির সাহায্যে খাবার খান। যদি আপনি অভ্যস্ত না হয়ে থাকেন তাহলে সাবধানে শুধুমাত্র চামচ দিয়ে খাওয়ার চেষ্টা করুন। বাসায় কাঁটা চামচ, চামচ এবং ছুরির সাহায্যে খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন।

(৪) টেবিলের ওপর হাত রাখবেন না। হাত নিজের কোলের ওপর রাখুন। কাঁধ ঝুকিয়ে বসবেন না। মেরুদণ্ড সোজা রেখে বসার চেষ্টা করুন এবং অভ্যাস করুন। খাবার সময়ও কুনুই টেবিলে রাখবেন না।

(৫) ভদ্রতা বজায় রেখে খাবার খান। ছোট ছোট বাইটে খাবার শেষ করুন। বড় এবং একবারে মুখে বেশি খাবার নেবেন না। এবং খাবার খাওয়ার সময় মুখ বন্ধ রেখে খাবেন। খাবার গিলে না ফেলে খানিকটা সময় নিয়ে খান।

(৬) টেবিলে বেশি হৈ হল্লা করবেন না। আশেপাশের মানুষের সমস্যা সৃষ্টি করে আড্ডা দেয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। এবং খাবার মুখে নিয়ে কথা বলা থেকে অবশ্যই বিরত থাকুন।

(৭) আপনার খাবার খাওয়ার মাঝে বিরতি নেয়া বা শেষ হয়ে গেলে প্লেটের ওপর চামচ কাঁটা চামচ ছড়িয়ে রাখবেন না। কাঁচা চামচ, চামচ বা ছুড়ি আড়াআড়ি ভাবে অর্থাৎ ক্রস করে রেখে দেয়ার অর্থ আপনি এখনো খাবার শেষ করেননি, বিরতি নিচ্ছেন। আপনার খাবার খাওয়া শেষ তা বুঝাতে চাইলে আচমচ, কাঁটাচামচ একসাথে প্লেটের ওপর লম্বালম্বিভাবে রেখে দিন।