দেশে ফিরেই সাকিবকে দেখতে হাসপাতালে গেলেন মাশরাফী

এশিয়া কাপ শেষে ২৯ সেপ্টেম্বর, শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে দেশে ফিরেন মাশরাফি বিন মুর্তজা ও তার দল। বিমানবন্দরে সংবাদ সম্মেলনে টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি, সাফল্য-ব্যর্থতা তুলে ধরেন মাশরাফি। সংবাদ সম্মেলন ও নানা আনুষ্ঠানিকতা শেষে গভীর রাতেই বাড়ি ফেরেন মাশরাফি।

সকাল হতেই আর সব কাজ ফেলে মাশরাফি ছুট লাগালেন অ্যাপোলো হাসপাতালে। যেখানে আঙুলের চোট নিয়ে ভর্তি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সেরা তারকা সাকিব আল হাসান। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারের শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে ৩০ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টা নাগাদ হাসপাতালে পৌঁছান মাশরাফি।

সেখানে প্রায় দুই ঘণ্টা সময় কাটান মাশরাফি-সাকিব। ওই সময় সাকিবের আঙুলের অবস্থার পাশাপাশি দুজনের আলোচনায় ওঠে আসে এশিয়া কাপের ফাইনালও। শুধু মাশরাফি একাই নন, এর আগে সাকিবের খোঁজ নিতে মেহেদী হাসান মিরাজও গিয়েছিলেন হাসপাতালে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপনও রবিবার উপস্থিত হয়েছিলেন অ্যাপোলো হাসপাতালে। সাকিবের সঙ্গে প্রায় আধা ঘণ্টা সময় কাটান পাপন। এ ছাড়া সাকিবের সঙ্গে দেখা করতে অ্যাপোলোতে গিয়েছিলেন আগের রাতেই প্রথমবারের মতো বাবা হওয়া তাসকিন।

আঙুলের চোটে সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) থেকে ২৬ সেপ্টেম্বর, বুধবার রাতে দেশে ফেরেন সাকিব। অস্ত্রোপচারের জন্য দ্রুতই যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু হাতের ব্যথার তীব্রতায় সাকিবকে পরের দিন নিয়ে যাওয়া হয় রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে। সেখানে সাকিবের হাতে ছোট একটি অস্ত্রোপচার করা হয়।

ওই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সাকিবের হাত থেকে ৭০ মিলিগ্রামের মতো পুঁজ বের করেন চিকিৎসকরা। আঙুলে জমে যাওয়া পুঁজ নিষ্কাশনের পর এখন ঘা শুকাতে তাকে অ্যান্টিবায়োটিক খেতে হচ্ছে।

সূত্র: প্রিয়.কম।