ভাবিনি এত সহজে স্বপ্নটা পূরণ হয়ে যাবে : ঐশী

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮ বিজয়ী হয়েছেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। গতকাল রোববার রাত ১২টায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেশন সিটি বসুন্ধরার রাজদর্শন হলে জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তার নাম ঘোষণা করা হয়। বিজয়ী হওয়ার গল্প ও অন্যান্য অভিজ্ঞতা সম্পর্কে সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি।

অভিনন্দন-

ধন্যবাদ।

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় আসার গল্পটা কেমন ছিল?

গত বছর প্রোগ্রামটা দেখেছি। আমার কাছে সম্পূর্ণ আলাদা মনে হয়েছে। অন্যান্য বিউটি কনটেস্ট থেকে ভিন্ন লেগেছে। কিন্তু আমার বয়স আঠারো না হওয়ার কারণেই আমার ইচ্ছে থাকার পরও গত বছর এতে অংশ নিতে পারিনি। যেহেতু এই আয়োজন ইন্টারন্যাশনাল অব্দি পৌঁছে দেয়, তাই আমার ইচ্ছেটা এই প্রতিযোগিতার প্রতি বেশি ছিল। এবার এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেব এমন উদ্দেশ্য খুব দৃঢ় ছিল এমনটা নয়। তবে এই আয়োজনের প্রতি আমার ভীষণ ভালোলাগা ছিল। এরপর যখন দেখলাম রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়েছে তখন ভাবলাম করেই ফেলি। রেজিস্ট্রেশন করলাম এরপর অডিশনের জন্য সিলেক্ট হলাম।

প্রথমবার এসেই মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ হয়ে যাবেন। এমনটা কি ভেবেছিলেন?

স্বপ্ন ছিল। কিন্তু ভাবিনি এত সহজে এমনভাবে স্বপ্নটা পূরণ হয়ে যাবে। সহজে না, অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে, কষ্ট করতে হয়েছে। এত বড় একটা প্ল্যাটফর্ম আমাকে প্রথম হিসেবে বেছে নেবে আর প্রথমবার অংশ নিয়েই বিজয়ী হয়ে যাবো এমন কখনও ভাবিনি। এখন পর্যন্ত আমার কাছে বিষয়টা স্বপ্নের মতো।

এই পর্যন্ত আসার পেছনে কার অবদান বেশি বলে মনে করছেন?

আমি আসলে সাংস্কৃতিক পরিবারে বড় হয়েছি। আমার বড় বোন গান করতেন। বাবা ও মা দুজনেই সংস্কৃতিমনা। সেখান থেকে আমি তৈরি হয়েছি। কিন্তু এরকম বড় পরিসরে আসব এটা ভাবিনি কখনোই। কিন্তু আমার স্বপ্ন ছিল। আমার এ পর্যন্ত আসার পেছনে মা, বাবা এবং আমার বোনের অবদান অন্যতম। তারা আমাকে উৎসাহ দিয়েছেন অনেক বেশি।

এত বড় একটা প্ল্যাটফর্ম পেয়েছেন। সামনের দিনগুলোতে ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবনা কী?

নাটক, টেলিফিল্ম বা চলচ্চিত্রে কাজ করবো না আমি তা বলছি না। আমার ভেতর যেহেতু এসব বিষয় আছে এক্ষেত্রে কিছু না কিছু করা উচিৎ। তবে আমি এটার পেছনে উঠেপড়ে লাগবো এমনটি নয়। আমি এমন কিছু করতে চাই যাতে মানুষের উপকার হয়। আমি অসহায় মানুষের জন্য কিছু করতে চাই।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা কী?

অবশ্যই সেরাদের একজন হতে চাই। ভালো কাজ করতে চাই। মানুষের ভালোবাসা পাবো এমন কিছু করতে চাই সব সময়।