৫০ পেরিয়ে ৫১-তে পা রাখলেন জাহিদ হাসান

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা জাহিদ হাসানের জন্মদিন আজ। এ দিনটিতে তিনি ৫০ পেরিয়ে ৫১-তে পা রেখেছেন। বছরের অন্যান্য সময়ে জাহিদ হাসান শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও জন্মদিনে তিনি কখনোই শুটিং করেন না। পরিবারের সঙ্গেই সময় কাটান।

জন্মদিন প্রসঙ্গে জাহিদ হাসান বলেন, প্রত্যেক মানুষের জন্মের একটা আলাদা সৌন্দর্য আছে। আবার মৃত্যুরও সৌন্দর্য আছে। তাই এই পৃথিবীতে মানুষ যতদিন বাঁচে সেটাই যেন এক আলাদা সৌন্দর্য। আমি আমার জীবন নিয়ে সন্তুষ্ট।

তিনি বলেন, এক জীবনে যা পেয়েছি তাতেই সন্তুষ্ট আমি। আল্লাহর কাছে লাখো শুকরিয়া যে তিনি আমাকে সুস্থ রেখেছেন, ভালো রেখেছেন। সবার দোয়া ও ভালোবাসার মাঝেই আমি বেঁচে থাকতে চাই। এটা সত্য যে ৪ঠা অক্টোবর আমার জন্মদিন। আমার কাছে এই ৪ঠা অক্টোবর অনেক কিছু। এটা ৮ই অক্টোবর কিংবা ১২ই অক্টোবরও হতে পারতো। কিন্তু আল্লাহ আমাকে এই পৃথিবীতে ৪ঠা অক্টোবরই পাঠিয়েছেন। তাই এটি আমার জন্য অন্যরকম দিন।

সিরাজগঞ্জের পুলক নামের এক সাধারণ তরুণ দর্শকের কাছে আজকের প্রিয় অভিনেতা জাহিদ হাসান। গ্রামের সহজ সরল সাধারণ সেই পুলক যে একদিন দেশের মানুষের কাছে এত প্রিয় একজন হয়ে উঠবেন এমনটা ভাবেননি তিনি কখনো। জাহিদ হাসান বলেন, সব আল্লাহর ইচ্ছা। দর্শকের ভালোবাসা নিয়ে আজীবন অভিনয় করে যেতে চাই।

জাহিদ হাসান ১৯৬৭ সালের ৪ অক্টোবর সিরাজগঞ্জে তার নানার বাড়িতে জন্মগ্রহন করেন। তার বাবা ইলিয়াস উদ্দিন তালুকদার ছিলেন একজন কাস্টম কর্মকর্তা ও মা হামিদা বেগম ছিলেন একজন গৃহিণী। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে জাহিদ হাসান সবার ছোট।

১৯৮৬ সালে আবদুল লতিফ বাচ্চুর পরিচালনায় বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার যৌথ প্রযোজনার বলবান ছায়াছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে হাসানের বড় পর্দায় অভিষেক হয় এ অভিনেতার ।তিনি ১৯৯০ সালে টেলিভিশনে অভিনয় শুরু করেন। এর পূর্বে তিনি ১৯৮৯ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে অভিনয়ের অডিশন দেন। তার অভিনীত প্রথম টেলিভিশন নাটক জীবন যেমন। আলিমুজ্জামান দুলু প্রযোজিত নাটকটি ১৯৯০ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। এই নাটকটি তার জীবনে রূপ পরিবর্তন করে দেয়।

১৯৯০ সালে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্প সমাপ্তি অবলম্বনে নির্মিত সমাপ্তি টেলিফিল্মে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন। নাটকটির চিত্রনাট্য রচনা করেছিলেন অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা।হুমায়ূন আহমেদ পরিচালিত টেলিফিল্ম নক্ষত্রের রাত, মন্ত্রী মহোদয়ের আগমন, সমুদ্র বিলাস প্রাইভেট লিমিটেড, আজ রবিবার তাকে জনপ্রিয়তার শীর্ষে নিয়ে আসে। এছাড়াও তিনি হুমায়ূন আহমেদ পরিচালিত শ্রাবণ মেঘের দিন চলচ্চিত্রে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

অভিনয়ের পাশাপাশি নির্মাতা হিসাবেও যথেষ্ঠ পরিচিতি রয়েছে জাহিদ হাসানের। তার পরিচালিত প্রথম মেগা ধারাবাহিক লাল নীল বেগুনি। তার পরিচালিত অন্যান্য টেলিভিশন ধারাবাহিকসমূহ হল ঘুঘুর বাসা, চোর কুটুরি, একা, ও ছন্নছাড়া। তার পরিচালিত টেলিভিশন নাটক ও টেলিছবিসমূহ হল রুমঝুম, বোকা মানুষ, ব্যবধান, স্বপ্নের গ্রহ, অপু দ্য গ্রেট, প্রাইভেট ডিটেকটিভ ও বাউন্ডুলে এক্সপ্রেস।

ব্যক্তিগত জীবনে জাহিদ হাসান জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী সাদিয়া ইসলাম মৌ-এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁদের দুই সন্তান রয়েছে। মেয়ের নাম পুস্পিতা এবং ছেলের নাম পূর্ণ। স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে তিনি ঢাকার মোহাম্মদপুরে বসবাস করেন। তার ‘পুস্পিতা প্রডাকশন লিমিটেড’ নামক একটি প্রযোজনা সংস্থা রয়েছে।