সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ক্যারিয়ার গুটিয়ে নিলেন গেইল!

ম্যাচ উইনিং এক সেঞ্চুরি দিয়ে লিস্ট-এ ক্যারিয়ার শেষ করলেন কিংবদন্তী ক্যারিবীয় হার্ড হিটার ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। কেনসিংটন ওভালে বার্বাডোসের বিপক্ষে রিজিওনাল সুপার ৫০ প্রতিযোগিতায় গেইল শনিবার নিকিতা মিলারের স্থানে জ্যামাইকার অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। ১১৪ বলে ১০টি বাউন্ডারি ও ৮টি ওভার বাউন্ডারির সহায়তায় তিনি ১২২ রানের শেষ ইনিংসটিও স্মরণীয় করে রাখলেন। গেইলের সেঞ্চুরিতে জ্যামাইকার ২২৬ রানের জবাবে বার্বাডোস ১৯৩ রানেই গুটিয়ে যায়।

আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন এটাই হবে জ্যামাইকার হয়ে তার শেষ ৫০ ওভারের ম্যাচ। যে কারণে ইনিংস শেষে সতীর্থ ও প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়দের কাছ থেকে গার্ড অব অনারও পেয়েছেন এই তারকা ব্যাটসম্যান। ৫০ ওভারের ম্যাচের ইতি টানলেও নিজ দেশের হয়ে আরেকটি চার দিনের ম্যাচে খেলবেন তিনি।

ম্যাচ শেষে গেইল বলেছেন, জ্যামাইকার পক্ষে যখনই খেলতে নেমেছি এক অন্যরকম অনুভূতি কাজ করেছে। তার উপর দলের অধিনায়কত্ব করে জয় উপহার দেয়ার অনুভূতি বিশেষ কিছু। তবে আমার কাছে অধিনায়কত্ব করার থেকে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করাই বেশি আনন্দদায়ক মনে হয়েছে। ৩৯ বছরেও এখানে দাঁড়িয়ে থাকতে পেরে আমি সত্যিই গর্বিত।

বিদায় সবসময় কঠিন। কিন্তু ক্রিকেটের পরেও জীবন আছে। দীর্ঘ ২৫ বছর যাবত একটানা ক্রিকেট খেলা সত্যিই দারুণ অভিজ্ঞতা। কিন্তু আমারও পরিবার আছে। তাদের সাথে সময় কাটানোই এখন আমার মূল লক্ষ্য।

ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেও এই ক্যারিবীয় সুপারস্টার এখনো ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্ন দেখেন। যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে এখন আর তিনি নেই। তবে বিশ্বজুড়ে ঘরোয়া বিভিন্ন টি২০ লিগে খেলা ঠিকই চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন গেইল।