জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে হারলেই বিপদ বাংলাদেশের

র‍্যাংকিংয়ের নিচের সারির দলগুলোর বিপক্ষে খেলা মানেই ঝুঁকি নিয়ে খেলা। একটি ম্যাচ হারলেই বিপদ। সিরিজ হারলেতো কথাই নেই। অন্যদিকে সিরিজ জিতলে খুব সামান্যই লাভ হয় উপরের সারির দলগুলোর।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজের একটি ম্যাচ হারলেই এমন বিপদে পড়তে হবে বাংলাদেশকে। একটি ম্যাচ হেরে সিরিজ জয় করলেও তেমন লাভ হবে না বাংলাদেশের। হারাতে হবে মূল্যবান রেটিং পয়েন্ট।

আসন্ন সিরিজে বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জয় করলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট ১ বেড়ে দাঁড়াবে ৯৩। হারলেই হবে বিপদ। বাংলাদেশ যদি ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় করে সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ২ রেটিং পয়েন্ট হারাবে। সে সময় বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট কমে দাঁড়াবে ৯০ এ।

জিম্বাবুয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় করলে বাংলাদেশ মূল্যবান ৫ রেটিং পয়েন্ট হারাবে। সিরিজ শেষে বাংলাদেশের পয়েন্ট কমে দাঁড়াবে ৮৭তে। কোনো কারনে বাংলাদেশ হোয়াইটওয়াশ হলে টাইগারদের ৭ রেটিং কমে যাবে। তখন পয়েন্ট কমে দাঁড়াবে ৮৫ তে।

ভালো খবর হচ্ছে বাংলাদেশ রেটিং পয়েন্ট হারালেও অবস্থান হারাবে না। বাংলাদেশের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শ্রীলঙ্কার রেটিং পয়েন্ট ৭৭। সেক্ষেত্রে হোয়াইটওয়াশ হলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট কমে দাঁড়াবে ৮৫ এ’তে। সিরিজ হারলেও বাংলাদেশ ৮ পয়েন্ট এগিয়ে থাকবে শ্রীলঙ্কা থেকে।

এখানে অবশ্য একটি কিন্তু থেকে যাচ্ছে, জিম্বাবুয়ে যদি বাংলাদেশের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ হারে, অন্যদিকে শ্রীলঙ্কা ৫-০ ব্যবধানে ইংল্যান্ডকে হারায় তবে র‍্যাংকিংয়ে পিছিয়ে পড়বে বাংলাদেশ। এমন হলে শ্রীলঙ্কার রেটিং পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়াবে ৮৬, বাংলাদেশের কমে দাঁড়াবে ৮৫।