জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য চমক রেখে চূড়ান্ত দল ঘোষণা

বাংলাদেশের বিপক্ষে বিপক্ষে দুটি টেস্ট এবং তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে আগামী ১৬ অক্টোবর বাংলাদেশ সফরে আসছে জিম্বাবুয়ে জাতীয় ক্রিকেট দল। বাংলাদেশে পৌঁছে ১৯ অক্টোবর বিকেএসপিতে একদিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নেবে দু’দল।

এরপর ২১ অক্টোবর মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রি‌কেট স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ও সফরকারীরা। সিরিজের শেষ দুটি ওয়ানডে গড়াবে ২৪ ও ২৬ অক্টোবর চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। প্রতিটি ওয়ানডে ম্যাচই দিবা রা‌ত্রির।

ওয়ানডে সিরিজ শেষে ৩-৭ নভেম্বর সিলেট আনন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গড়াবে প্রথম টেস্ট ম্যাচটি। আর এই ম্যাচ দিয়েই নয়োনাভিরাম স্টেডিয়ামটির টেস্ট অভিষেক হবে। দ্বিতীয় ও শেষটি অনুষ্ঠিত হবে ১১-১৫ নভেম্বর মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। নতুন মুখ ওপেনার ফজলে রাব্বি আর ফিরেছেন পেইস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। এশিয়া কাপ দল থেকে বাদ পড়েছেন মোসাদ্দেক সৈকত ও মুমিনুল হক। সাকিব-তামিম না থাকায় জিম্বাবুয়ে সিরিজকে হালাকাভাবে নেয়ার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন- প্রধান নির্বাচক।

ইনজুরির কারণে সাকিব-তামিম খেলছেন না জানা ছিলো আগেই। তাই তো জিম্বাবুয়ে সিরিজ ছিলো নতুনদের পরখ করে নেয়ার বড় সুযোগ। তবে খুব বেশি পরীক্ষা নিরীক্ষার পথে হাটেননি নির্বাচকরা। সবশেষ এশিয়া কাপ দল থেকে বাদ পড়েছেন মোসাদ্দেক সৈকত ও মুমিনুল হক। লিটন দাস ও সৌম্য সরকারের সাথে ব্যাকআপ ওপেনার হিসেবে রাখা হয়েছে ফজলে মাহমুদ রাব্বি। এছাড়া বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হকের সাথে রাখা হয়েছে আরেক অলরাউন্ডার সাইফ উদ্দিনকে।

এছাড়া ইনজুরি শঙ্কা থাকলেও অধিনায়ক হিসেবে আছেন মাশরাফী। এছাড়া অন্য সদস্যরা হলেন লিটন দাস, মুশফিক, মাহমুদুল্লাহ, নাজমুল শান্ত, মোস্তাফিজ, রুবেল, আবু হায়দার রনি। ২১ অক্টোবর হবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একদিনের সিরিজের জন্য বাংলাদেশ স্কোয়াড: মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আরিফুল হক, মেহেদি হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, আবু হায়দার রনি, মোহাম্মদ সাঈফউদ্দিন ও ফজলে রাব্বি মাহমুদ।