বান্ধবীর চাহিদা মেটাতে গিয়ে কারাগারে গুগল ইঞ্জিনিয়ার

বান্ধবীর চাহিদা মেটাতে গিয়ে চুরির দায়ে কারাগারে যেতে হলো এক তরুণ ইঞ্জিনিয়ারকে। তবে কোনও ছোট সংস্থার ইঞ্জিনিয়ার নয়, গুগলের ইঞ্জিনিয়ার তিনি। পরে এ ঘটনা দ্রুতই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে৷

সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গেছে, গুগলের প্রযুক্তি সহায়ক হিসেবে কর্মরত ছিলেন ভারতের হরিয়ানার বাসিন্দা গর্বিত সাহানি৷ সেমিনারে গিয়ে কর্মকর্তার ব্যাগ থেকে ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে ৷ পরে সেমিনারে থাকা সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷

পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর ইঞ্জিনিয়ার গর্বিত সাহানি দাবি, বান্ধবীর চাহিদা মেটাতেই নাকি এই কাণ্ড ৷

তবে চোরের মুখ থেকে চুরি করার আসল কারণ জেনেও গলতে নারাজ পুলিশ৷জানা গেছে, চুরির অভিযোগে অভিযুক্ত গর্বিত সাহানির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ ৷

অভিযোগ থেকে আরো জানা গেছে , সেমিনার শেষ হতেই দেবযানী জৈন দেখেন, তাঁর ব্যাগ থেকে উধাও ১০ হাজার টাকা ৷ এরপরই তিনি পুলিশের দ্বারস্থ হন ৷ পরে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে প্রথমে অভিযুক্ত ওই ইঞ্জিনিয়ারকে আটক করে পুলিশ ৷

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছের, জিজ্ঞাসাবাদে চুরির অভিযোগ স্বীকার করেছে অভিযুক্ত ইঞ্জিনিয়ার ৷

জিজ্ঞাসাবাদে ওই ইঞ্জিনিয়ার আরো জানায়, বান্ধবীর চাহিদা মেটাতে গিয়ে আর্থিক অনটনে ছিলেন তিনি ৷ আর সেই কারণেই ১০ হাজার টাকা চুরি করার সিদ্ধান্ত নেয় সে ৷

জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেপ্তারকৃত ওই যুবকের কাছ থেকে খোয়া যাওয়া ৩ হাজার টাকাও পুলিশ উদ্ধার করেছে বলে জানা গেছে ৷-কালের কণ্ঠ অনলাইন