বিশ্বকাপের মূল দলে খেলতে চান মোহাম্মাদ মিথুন

২০১৯ বিশ্বকাপের মূল দলে খেলার সংকল্প মোহাম্মাদ মিথুন আলীর। এ জন্য অবশ্য সামনের সিরিজগুলোতে সামর্থ্যের সেরা ক্রিকেট খেলার প্রত্যয় তার। কারণ বড় ইনিংস খেললেই স্বপ্ন হবে পূরণ। মূলত মিথুন আলী টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হলেও, দলের প্রয়োজন সব পজিশনে খেলতে চান তিনি। আর হঠাৎ করে দলে সুযোগ পাওয়ার নয়। মিথুন চান জায়গাটা পোক্ত করতে।

তিনি বলেন, যেটা দিয়ে আমরা সংসার চলে আমি সেটাই করতে চাই। ক্রিকেট ছাড়া আমার আর অন্য কোন পেশা নেই। কারণ আমি ক্রিকেট ছাড়া অন্য কোনকিছুই করি না। মোটিভেশনটা ওখান থেকেই এসেছে।

মিথুন আলীর কথাগুলো আক্ষেপ এবং কঠিন সংগ্রমের। এক যুগের ক্রিকেট অধ্যায় তার। আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথ চলা মোটে ৪ বছরের। খেলেছেন ৯টি ওয়ানডে আর ১৩টি টি-টোয়েন্টি। চার বছরে এতো অল্প ম্যাচ খেলার কারণ জানতে একটু পেছনে যেতে হবে। ২০০৬ সাল থেকে ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করার পর, ২০০৯ সালে জাতীয় দলে ডাক পেলেও, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অভিষেক হয় তার ৫ বছর পর। বাদ পড়েন, আবারো ডাক পান, এমনটা হয়েছে তার সাথে বেশ কয়েকবার। এবারই প্রথম টানা দুই সিরিজ খেলবেন মিথুন।

তিনি আরো বলেন, এবার ফার্স্ট ম্যাচেই রান এসেছে। এর আগেই হয়ত এই সময়টা আসা দরকার ছিলো। যা হোক পেছনের কথা চিন্তা করে তো আর লাভ নেই।

মিথুন মূলত টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করলেও, জাতীয় দলে এই পজিসনে তাকে করতে হচ্ছে সংগ্রম। যদিও, এশিয়া কাপে মিডল অর্ডারে নেমে দারুণ সব কাভার ড্রাইভ, স্কয়ার কার্ট, বিগ শর্টে মুগ্ধ করেছেন। দলের নাজুক অবস্থায় শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে দিয়েছেন আস্তার প্রতিদান। তাই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দলে টিকেছেন। আর আসন্ন সিরিজগুলোই হতে পারে মিথুনের বিশ্বকাপ আসরের স্বপ্নের দরজা খোলার চাবি।বরাবরই ধৈর্য্যর পরীক্ষা উর্ত্তীন হওয়া মিথুন ব্যাটিং টেকনিকে করতে চান আরো উন্নতি।