তবে কি এবার অধিনায়ক থেকে পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন কোহলি?

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হার দিয়েই শেষ হয়ে গেল ভারতের বিশ্বকাপ মিশন। আর এই বিশ্বকাপের পরেই কোহলির অধিনায়ক নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে সমালোচনার।তবে এবার যে পদত্যাগও করতে যাচ্ছেন কোহলিও। এমন খবরেই ছড়াচ্ছে ভারতের গণমাধ্যমে। খুব শীঘ্রই যেন কোহলি পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন। এমনটা জানিয়েছে ভারতীয় পত্রিকাগুলো। তবে শুধু সেটাই নয়, ম্যাচের শুরুতেই কোহলিকে অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। এই প্রশ্নের জবাবে কোহলি বলেন, তিনি এই ব্যাপারে দেশে গিয়েই সিদ্ধান্ত নিবেন।

এদিকে,গ্রুপপর্ব থেকে শীর্ষস্থান দখল করেই নকআউট পর্বে এসেছিলেন কোহলিরা। কিন্তু নকআউট পর্বে এসেই ধাক্কা খেল ভারতীয় দল। কিউই বোলিং তোপে ১৮ রানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় ২০১১ সালের চ্যাম্পিয়নরা। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দুই দিন গড়ানো এই ম্যাচে ভারতের সামনে টার্গেট ছিল মাত্র ২৪০। রান উৎসবের এই বিশ্বকাপে এটা খুব বড় কোনো টার্গেট নয়। কিন্তু কোহলিদের বিব্রতকর ব্যাটিংয়ে এই রানও হয়ে ওঠে ‘পাহাড় সমান’।

এর শতভাগ কৃতিত্ব কিউই বোলারদের। এ জন্য হারের পর হ্যানরি-বোল্টদের প্রশংসা করতে ভোলেননি কোহলি। ম্যাচ শেষে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেন, ‘আমরা বুঝেছিলাম, মাঠে আমাদের কী করা প্রয়োজন। গতকাল আমাদের একটা ভালো দিন ছিল। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের বোলারদের সামনে আমরা ব্যর্থ হয়েছি। এই কৃতিত্ব তাদের বোলারদের, তারা অবস্থাকে কাজে লাগিয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেছে।’

দলের হয়ে লড়াই করা দুই খেলোয়াড় ধোনি-জাদেজার প্রশংসা করে কোহলি বলেন, ‘জাদেজা গত কয়েকটি ম্যাচ অসাধারণ খেলেছে। ধোনি তার সঙ্গে অনেক গুরত্বপূর্ণ জুটি গড়েছে। কিন্তু ধোনির রান আউটে সব শেষ হয়ে যায়।’ চাপকে কাজে লাগিয়ে জয় পেয়েছে নিউজিল্যান্ড। কিউইদের প্রশংসা করে কোহলি বলেন, ‘৪৫ মিনিটের খারাপ খেলাই পুরো টুর্নামেন্ট থেকেই বাদ হওয়ার কারণ, এটা মেনে নেওয়া অনেক কঠিন।

কিন্তু নিউজিল্যান্ডের এটাই প্রাপ্য ছিল।’ আগামীকাল দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড। এই দুল দলের মধ্য জয়ী দলের সঙ্গে আগামী ১৪ জুলাই ফাইনাল খেলতে নামবে নিউজিল্যান্ড।