বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে যা বললেন চামিন্দা ভাস

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটের সোনালী যুগের ভয়ংকর পেসার ছিলেন তিনি। অবসর নেওয়ার পর যুক্ত হয়েছেন কোচিং পেশায়। প্রধান কোচ হিসেবে ইমার্জিং দল নিয়ে এবার তিনি এসেছেন বাংলাদেশ সফরে। প্রথম ম্যাচেই বাজিমাত করেছে লঙ্কানরা। বাংলাদেশকে নাকানি চুবানি খাইয়ে জয় পেয়েছে ১৮৬ রানের বিশাল ব্যবধানে। য়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ডি সিলভার উদ্ভাসিত অলরাউন্ডিং পারফরমেন্সের সামনে চরম নাস্তানাবুদ নাজমুল হোসেন শান্তর দল। কিন্তু এত বাজে পারফর্মেন্স কেন করছে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা?

বিকেএসপিতে দ্বিতীয় ম্যাচে ইমার্জিং টাইগারদের বিপক্ষে লঙ্কানরা মাঠে নামার আগে মিরপুর শের-ই-বাংলা একাডেমি মাঠে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভাস বলেন, ‘আপনি বলতে পারেন না স্বাগতিকরা খুব বেশি খারাপ খেলেছে। একটি ম্যাচে যেকোনো দলেরই অমন হতে পারে। তবে আমার ধারণা এবং আমি নিশ্চিত, স্বাগতিক তরুণরা ঠিক ঘুরে দাঁড়াতে পারে। কাজেই আমার ছেলেরা মোটেই বাংলাদেশ ইমার্জিং দলকে হালকাভাবে নিচ্ছে না। মাঠের সেরা দলই জিতবে সিরিজ।’

তাহলে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের ঘাটতিটা কোথায়? কোন জায়গাটিতেই উন্নতি করতে হবে? জবাবে ভাস বলেন, ‘আমি দেখেছি বাংলাদেশ দলে বেশ কিছু ট্যালেন্টেড ক্রিকেটার আছে। তাদের স্কিলও ভালো। তবে তাদের ফিটনেস বাড়াতে হবে। এটা যে বাংলাদেশের ছেলেদের কথা বলছি, তা নয়। লঙ্কানদের জন্যও একই কথা প্রযোজ্য। ছেলেরা বয়সে নবীন। ২১-২২ বছর বয়স। তাদের প্রত্যেকের ফিটনেস লেভেলটা উন্নত করা খুব প্রয়োজন। ফিটনেস না থাকলে আপনার স্কিল কোনো কাজে আসবে না।’