নিজেকে প্রমাণ করতেই ব্যাটিং নেমেছিলাম : আফিফ হোসেন

দিনটাকে কোন দিন ভুলবে না আফিফ হোসেন। কারণ আজ (শুক্রবার) তিনি বাংলাদেশ দলকে জিতিয়েছেন সামনে থেকে। বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানরা সব হতাশ করে বিদায় নিয়েছিল। সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহর মতো ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা যখন দারুণ হতাশার জন্ম দিল বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের হৃদয়ে, তখন সেটাকে নিমিষে দূর করে দিলেন আফিফ হোসেন ধ্রুব।

বয়স মাত্র ২০ ছুঁই ছুঁই। মোসাদ্দেক হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে এই বয়সে দলকে নিশ্চিত হার থেকে রক্ষা করলেন এই তরুণ ক্রিকেটার। বাংলাদেশকে এনে দিলেন ৩ উইকেটের এক লজ্জা এড়ানো জয়। আফিফ হোসেন ধ্রুবর সঙ্গে ৮২ রানের জুটি গড়েন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও। মাত্র ২৪ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন আফিফ। যদিও শেষ মুহূর্তে ২৬ বলে ৫২ রান করে আউট হয়ে যান তিনি। কিন্তু তাতে জয় পেতে আর কষ্ট হয়নি বাংলাদেশের।

চমৎকার ব্যাটিংয়ে তাই তো ম্যাচ সেরা হয়েছেন তিনি। ম্যাচ শেষে অাফিফ হোসেন বলেন, ‘আমি ইতিবাচক থেকে ব্যাটিং করার চেষ্টা করেছি। এমন পরিস্থিতিতে খেলতে পেরে রোমাঞ্চিত ছিলাম। কারণ দীর্ঘ সময় পর দলকে জেতানোর একটি সুযোগ এসেছিল। বলকে সজোরে মারতে চেয়েছি, টাইমিংও ভালো হচ্ছিল। মোসাদ্দেকের সাথে পার্টনারশিপ দারুণ উপভোগ্য ছিল। সে মাঠে আমাকে অনেক সমর্থন যুগিয়েছে।’