পূরণ হয়েছে আফিফের ইচ্ছা

ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৬০ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারে বাংলাদেশ। এ অবস্থায় আট নম্বরে ব্যাট হাতে নামেন বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন। সাধারনত মিডল-অর্ডারেই ব্যাট করে থাকেন তিনি। কিন্তু আট নম্বরে নেমেও যে, ব্যাট হাতে দুত্যি ছড়ানো যায় এবং একক প্রচেষ্টায় দলকে ম্যাচও জেতানো যায় সেটি গতরাতে প্রমান করেছেন আফিফ।

২৪ বলে হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নিয়ে ২৬ বলে ৫২ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলেন বাঁ-হাতি ব্যাটস্যান আফিফ। দলকে এভাবে জেতাতে পারায় মনের ইচ্ছাটা পূরণ হয়েছে বলে জানান আফিফ, ‘সবারই ইচ্ছে থাকে এমন ইনিংস খেলে দেশকে জেতানোর। সিরিজের প্রথম ম্যাচে আমার সেই ইচ্ছাটা পূরণ হয়েছে।’ দলের কঠিন পরিস্থিতির মাঝে দুর্দান্ত হাফ-সেঞ্চুরির পরও কোন উদযাপন করেননি আফিফ। কেন করেননি?

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নের উত্তরে আফিফ বলেন, ‘যখন ফিফটি হয়েছে খেয়াল করিনি। তখন চিন্তায় ছিল ম্যাচ শেষ করার। ভাবনা ছিল ম্যাচ শেষে আনন্দ উদযাপন করব। ম্যাচটা শেষ করতে পারিনি। তার আগেই আউট হতে হয়েছে।’ দুর্দান্ত ইনিংস খেলে দলকে ম্যাচ জেতালেও, ম্যাচের শেষ পর্যন্ত থাকার আশা পূরণ হয়নি আফিফের। তবে নিজের ব্যাটিং নিয়ে সন্তুষ্ট আফিফ, ‘নিজের ব্যাটিং নিয়ে অবশ্যই সন্তুষ্ট। কারণ দল জিততে পারে এমন ইনিংস খেলেছি। নট আউট থাকতে পারলে নিজের কাছে আরও ভালো লাগতো।’