সিরাজগঞ্জে ঠিকানাহীন বৃদ্ধার দায়িত্ব নিলেন সুইপার সোনিয়া

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধার আশ্রয় হয়েছে এক সুইপারের ঘরে। মহিষলুটি বাজার এলাকায় গত ১০ সেপ্টেম্বর ওই বৃদ্ধা এদিক-ওদিক ঘুরাফেরা করছিলেন। জানা গেছে, ওই দিন মহিষলুটি বাজারে ঘুরাফেরা অবস্থায় স্থানীয় ও বহিরাগত বেশকিছু মানুষ ওই বৃদ্ধাকে দেখতে ভিড় জমায়। তারা সবাই দেখে আবার চলেও যায়। অবশেষে সুইপার সোনিয়ার ঘরে বৃদ্ধার ঠাঁই হয়।

বাজারের নৈশ প্রহরী আক্কাছ আলী জানান, রাত আটটার দিকে ওই বৃদ্ধাকে কে বা কারা বাজার এলাকায় রেখে যায়। বাজারের পাশের হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের ওপরও কয়েকবার উঠে পড়েছিলেন ওই বৃদ্ধা। সুইপার সোনিয়া জানান, মহিষলুটি বাজারের পাশেই পশু জবাই করার একটি সরকারি পরিত্যক্ত জায়গায় তিনি স্বামী-সন্তানদের নিয়ে বসবাস করেন। রাতে বাজারে লোকজনের জমায়েত দিখে তিনি এগিয়ে যান। স্থানীয়দের সঙ্গে আলোচনা করে বৃদ্ধার দায়িত্ব নেই।

সোনিয়া আরো জানান, তিনি বৃদ্ধাকে নিজের মায়ের মতো করে আদর-যত্নে রেখেছেন। নিয়ম মতো খাবার খাওয়ানো থেকে শুরু কর সব ধরনের সেবা-যত্নই করেন। তিনি কাজে গেলে তার তিন মেয়ে দেখাশোনা করেন। যতদিন পর্যন্ত না তার আত্মীয়ের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে, ততদিন তার কাছেই রেখে দেবেন বলে জানান সোনিয়া।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. শাহাদত হোসেন বলেন, মঙ্গলবার তিনি নিজেও সুইপার সোনিয়ার ঘরে বৃদ্ধাকে দেখে এসেছেন। বৃদ্ধা বাক প্রতিবন্ধী। শিগগিরই তাকে পুনর্বাসনের চেষ্টা করা হবে।-ডেইলি বাংলাদেশ