প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে নাসায় চাকরি পেলেন মাহজাবীন

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসায় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন মাহজাবীন হক। তিনি পেইন্টিং ও ডিজাইনে পারদর্শী। এদিকে সিলেটে জন্ম নেয়া এই মেয়ের সাফল্যে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে বাঙালি কমিউনিটির মধ্যে আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি গোলাপগঞ্জ উপজেলার কদমরসুল গ্রামে।

জানা গেছে, মাহজাবীন হক চলতি বছরই মিশিগানের ওয়েইন স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। মাহজাবীন হক তার বাবা-মার সঙ্গে ২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। বর্তমানে তার সঙ্গে মা ফেরদৌসী চৌধুরী ও একমাত্র ভাই সৈয়দ সামিউল হক রয়েছেন। সৈয়দ সামিউল হক ইউএস আর্মিতে চাকরি করেন।

ওয়েইন স্টেট ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়নরত অবস্থায়ই মাহজাবীন হক দুই দফায় টেক্সাসের হিউস্টনে অবস্থিত নাসার জনসন স্পেস সেন্টারে ইন্টার্নশিপ করেন। প্রথমদিকে তিনি ডাটা অ্যানালিস্ট এবং পরে সফটওয়্যার ডেভেলপার হিসেবে মিশন কন্ট্রোলে কাজ করেন।

মাহজাবীন হক জানান, নাসায় দুই দফায় আট মাস দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিভাগে কাজ করেন তিনি। এর ফলে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। নাসা ছাড়াও বিশ্বের অনেক খ্যাতনামা কোম্পানি থেকে তিনি চাকরির আমন্ত্রণ পেয়েছেন। এর মধ্যে নাসাকেই বেছে নিয়েছেন।-ডেইলি বাংলাদেশ