যে দোয়া পড়লে আল্লাহর রহমতে বিপদ-আপদ থেকে মুক্তি মিলবে

কখন কার উপর রোগ বা বালা মুসিবত আবর্তিত হয় সেটা কেউ জানেনা। বিপদ আসলে দেখা যায় তখন বেশিরভাগ মানুষই দিশেহারা হয়ে পড়ে। সম্প্রতি দেশে বন্যা ও ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত মানুষ। কেউ ভালো থাকলেও আক্রান্তদের প্রভাব কিন্তু ভালোদের মধ্যেও পড়ে।

বন্যায় কেউ আক্রান্ত হলে বা কেউ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হলে তাকে নিয়ে অন্যদেরও সমস্যায় পড়তে হয়। আর এসব রোগ ও মুসিবত থেকে মুক্তি পেতে সচেতনতার পাশাপাশি আল্লাহর কাছে সাহায্য চাইতে হবে। তিনিই একমাত্র উদ্ধারকারী। তিনি চাইলে মুহূর্তেই বিপদ থেকে মুক্তি দিতে পারেন।

বিপদাপদ থেকে পরিত্রাণের জন্য পবিত্র কোরআন এবং রাসুল (সা.) এর হাদিসে কিছু দোয়াও আমলের কথা বর্ণিত হয়েছে। আনাস (রা.) বলেন, ‘যখন রাসুলুল্লাহ (সা.)- এর ওপর কোনো কাজ কঠিন হয়ে দেখা দিত, তখন তিনি এ দোয়াটি পড়তেন।’ (তিরমিজি মিশকাত, হাদিস নম্বর: ২৪৫৪)

দোয়ায়ে ইউনুস (আ.): রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, মাছের পেটে ইউনুস (আ.) এ দোয়া পড়ে আল্লাহকে ডেকে ছিলেন এবং মুক্তি পেয়েছিলেন। যদি কোনো মুসলিম বিপদে পড়ে এ দোয়া পাঠ করে, আল্লাহ তা কবুল করবেন।’ (আহমাদ, তিরমিজি, মিশকাত, হাদিস নম্বর: ২২৯২)।
উচ্চারণ: ‘লাইলা-হা ইল্লা আনতা সুবহা-নাকা ইন্নি কুনতুমিনাজ্জালিমিন’ (সুরা আম্বিয়া: ২১/৮৭)

অর্থ: হে আল্লাহ! তুমি ছাড়া কোনো উপাস্য নেই, তুমি মহাপবিত্র। নিশ্চয়ই আমি সীমা লঙ্ঘনকারীদের অন্তর্ভুক্ত। কেউ চাইলে ১ লক্ষ ২৪ হাজার বার একসঙ্গে এই দোয়া পড়লে ভালো ফলাফল পাওয়া যেতে পারে। এতে দ্রুত দোয়া কবুল হয়।