বরফে পিছলে পাকিস্তানে চলে গেলেন ভারতীয় সেনার হাবিলদার, চিন্তায় পরিবার

কাশ্মীরের গুলমার্গের বরফে পা পিছলে পড়ে গিয়ে পাকিস্তানে দু’র্ঘটনাবশ’ত ঢুকে পড়েছেন এক ভারতীয় সেনা জওয়ান। উত্তরাখণ্ডের চামোলি জেলার বাসিন্দা ভারতীয় সেনার হাবিলদার রাজেন্দ্র সিং নেগিকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই উত্‍ক’ণ্ঠায় রাতের ঘুম উড়েছে তাঁর পরিবারের। শুক্রবারই এক ভারতীয় নাগরিকের মু’ণ্ডচ্ছেদ করে নিয়ে চলে গিয়েছে পাকিস্তানের বর্ডার অ্যাকশন টিম।

রবিবার এই মাথা কেটে খুন করার কথা জানাজানি হওয়ার পরে রাজেন্দ্র সিং নেগিকে নিয়ে চিন্তা আরও বেড়েছে। জানা গিয়েছে ৩৬ বছরের ওই হাবিলদার গত ৮ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ। গুলমার্গে সেই সময় ডিউটিতে ছিলেন তিনি। পরের দিন ৯ জানুয়ারি ভারতীয় সেনার তরফে তাঁর পরিবারে ফোন করে রাজেন্দ্রকে খুঁজে না পাওয়ার কথা জানানো হয়।

১১ নম্বর গাড়ওয়াল রাইফেলে কর্মরত ছিলেন তিনি। ২০০২-এ ভারতীয় সেনায় যোগ দেন তিনি। অনুমান করা হচ্ছে যে গুলমার্গে টহলদারির সময় বরফে পা পিছলে পড়ে গিয়ে নিয়’ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে যান রাজেন্দ্র। তাঁকে নিরাপদে ফিরিয়ে আনার সবরকম চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে সেনা কর্তৃপক্ষ। উত্তরাখণ্ডের চামোলি জেলার পাচনয়া গ্রামে রাজেন্দ্রের বাড়িতে বাবা-মা ও তিন ভাই রয়েছেন।-এই সময়।