জনপ্রিয়তার শিখরে আওয়ামী লীগ সরকার : আইআরআই

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই) এর জরিপে উঠে এসেছে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নে সন্তুষ্ট বাংলাদেশের মানুষ। ২০১৮ এর নির্বাচন নিয়ে পশ্চিমা দেশগুলো প্রশ্ন তুললেও এর কোন প্রভাব দেখা যায়নি আইআরআই’র জরিপে। তবে এই জরিপে বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা হিসেবে দু’র্নীতি ও বৈ’ষম্যকে চিহ্নিত করা হয়েছে।

শেখ হাসিনার সরকারের বছর পূর্তিতে প্রকাশিত তাদের এক জনমত জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, সরকারের প্রতি সমর্থন এক বছরে অনেক বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে বি’রোধী দলের জনপ্রিয়তা। ২০০৮ সালে নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় আসা আওয়ামী লীগ পরে আরও দুটি নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় নিয়ে এখন টানা তৃতীয় মেয়াদে দেশ পরিচালনা করছে। জরিপ অনুযায়ী সরকারের প্রতি সমর্থন ১৯ শতাংশ পয়েন্ট বেড়ে এখন ৮৩ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

আইআরআইর এশিয়া অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক জোহানা কাও বলেন, ‘অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রার সাফল্য, বিশেষ করে অবকাঠামো উন্নয়ন, সরকারের জনপ্রিয়তা বাড়িয়ে তুলেছে।’ রেডস্টোন সাইন্টিফিকের তত্ত্বাবধানে আইআরআই ২০১৯ সালের ১ অগাস্ট থেকে ১৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই জরিপ পরিচালনা করে। যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান পার্টির নেতা জন ম্যাককেইনের নেতৃত্বে পরিচালিত আইআরআইকে ডানপন্থিদের একটি হাতিয়ার হিসেবে বিবেচনা করেন অনেকে।

সরকারের পক্ষ থেকে শিক্ষায় নেওয়া পদক্ষেপকে সমর্থন করছে ৯০ শতাংশ নাগরিক, বিদ্যুৎ ও জ্বা’লানি উন্নয়ন কার্যক্রমের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন ৮৬ শতাংশ এবং যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়নে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ৮১ শতাংশ। বিশুদ্ধ পানি সরবরাহে ৭৭ শতাংশ, সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় ৭৬ শতাংশ, স্বাস্থ্য খাতে ৭৪ শতাংশ এবং শান্তি-শৃঙ্খ’লা বজায় রাখার ক্ষেত্র ৭১ শতাংশ সরকারের কার্যক্রমকে সমর্থন জানিয়েছেন।