শিশুকে ধ’র্ষণ, ধ’র্ষককে প্রকাশ্যে পু’ড়িয়ে মা’রল গ্রামবাসী!

ছয় বছরের এক শিশুকে ধ’র্ষণ করে খুন করার অভি’যোগ উঠেছিল এক ব্যক্তির বি’রুদ্ধে। সেই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে শাস্তি দিতে পে’ট্রল ঢেলে প্রকাশ্যে পু’ড়িয়ে মা’রলেন গ্রামবাসী। সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে মেক্সিকোর ছিয়াপাস প্রদেশের একটি গ্রামে। ছয় বছরের ওই শিশুর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। নিখোঁজ থাকার পরদিন ওই শিশুর দে’হ গ্রামের রাস্তার ধারে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এ ঘটনার আল’ফ্রেডো রবলেরো নামের ওই ব্যক্তিকেই সবাই স’ন্দেহ করতে থাকেন।

শিশুর পরিবারের লোকজন অভিযু’ক্তকে ধরে পুলিশের কাছে নিয়ে যাচ্ছিলেন তখন তাদের হাত থেকে আল’ফ্রেডোকে ছিনিয়ে নেন ক্ষি’প্ত গ্রামবাসীরা। তারপর তাকে একটি খুঁটিতে বেঁ’ধে ফেলেন তারা। সেখানেই অভিযু’ক্তর গায়ে ঢালা হয় পেট্র’ল। তার পর লাগিয়ে দেয়া হয় আ’গুন। সবার সামনেই জ্ব’লতে জ্ব’লতে শেষ হয়ে যান আল’ফ্রেডো। সেই ঘটনার ভি’ডিও এখন ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যা’টফর্মে। তারপরই বিষয়টি নিয়ে মিশ্র প্র’তিক্রিয়া দিয়েছেন নেটিজেনরা।

আলফ্রে’ডোর আ’গুন লাগানোর খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছেছিল পুলিশ। তবুও আল’ফ্রেডোর জীবন বাঁচানো যায়নি। আল’ফ্রেডোই ওই শিশুকে ধ’র্ষণ করে খু’ন করেছিলেন কি না সে ব্যাপারেও নিশ্চিত কোনো প্রমাণ পুলিশকে দিতে পারেননি গ্রামবাসীরা। আইন নিজেদের হাতে তুলে নেওয়ার জন্য গ্রামবাসীদের বি’রুদ্ধে কী ব্য’বস্থা নেয়া হয়েছে তা এখনও জানা সম্ভব হয়নি।

সূত্র: আনন্দবাজার