যেভাবেই হোক করোনাভা’ইরাস প্রতিরো’ধ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

চীন ফেরত বাংলাদেশিদের অবশ্যই পর্যবেক্ষণে থাকতে হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যেভাবেই হোক করোনাভা’ইরাস প্রতিরো’ধ করতে হবে। এ ব্যাপারে কোনও ছাড় নয়। আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে করোনাভা’ইরাস প্রতি’রোধে করণীয় নিয়ে বিশেষ বৈঠকে একথা বলেন তিনি।

এদিন মন্ত্রীপরিষদের নিয়মিত বৈঠকের পর মন্ত্রী ও কর্মকর্তাসহ ২৪/২৫ জনকে নিয়ে বিশেষ এই বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। যেখানে কয়েকটি জরুরি নির্দেশনা দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। সচিব জানান, ‘চীনের উহানে এখনও ১৭১ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী আছেন। তাদের দেশে আনা হবে।

কিন্তু তাদের আনতে দেশ থেকে বিমান পাঠানো যাবে না। কারণ যে বিমান পাঠানো হয়েছিল, তার পাইলট ও ক্রুদের সিঙ্গাপুরসহ অন্যান্য দেশ ভিসা দিতে চাচ্ছে না। এ কারণে বিমান চলাচল মন্ত্রণালয়কে চার্টার্ড বিমান নিতে বলা হয়েছে।’ উহানে ফেরত যাওয়াদের আপাতত বাংলাদেশে আসতে দেওয়া হবে না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন,

পরিষ্কার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বাংলাদেশের যেসব প্রকল্পে উহানের শ্রমিক আছে, এরমধ্যে যারা উহানে ফেরত গেছেন, তাদের ওয়ার্ক পারমিট আর নবায়ন করা হবে না।’ সচিব জানান, ‘উহান থেকে ঢাকায় যে চারটি ফ্লাইট আসে, তারা খুব বেশি প্যাসেঞ্জার বহন করে না। তাই ইউএস বাংলাসহ অন্যান্য এয়ারলাইনগুলো নিজেরাই এসব ফ্লাইট বন্ধ করে দেবে।’

বৈঠকে বিমান মন্ত্রণালয়ের সচিব মহিবুল হক ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকি’ৎসক প্রফেসর এম আবদুল্লাহও উপস্থিত ছিলেন।-একুশে টেলিভিশন