মাশরাফির মা-বাবার হাতে মিষ্টি খেয়ে যা বলল বিশ্বকাপজয়ী অভিষেক

যুব বিশ্বকাপ বিজয়ী ক্রিকেটার আরেক ‘নড়াইল-এক্সপ্রেস’ অভিষেক দাসকে বরণ করে নিলেন নড়াইলবাসী। বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে তাকে বরণ করে নেয়া হয়। এর আগে যশোর বিমানবন্দর থেকে মোটর শোভাযাত্রা সহকারে অভিষেককে নিয়ে আসা হয় জন্মভূমি নড়াইলে। নিজ এলাকায় ফিরে অভিষেক প্রথমে কিংবদন্তি ক্রিকেটার নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজার বাড়ি শহরের মহিষখোলায় যান।

সেখানে মাশরাফির বাবা ও মা অভিষেককে মিষ্টি খাইয়ে দেন। এ সময় তরুণ ক্রিকেটার অভিষেক দাস বলেন, আপনারা আমার জন্য আর্শীবাদ করবেন, আমি যেন এর চেয়ে ভাল কিছু করতে পারি। পরে মোটর শোভাযাত্রাটি অভিষেকদের বাড়ি শহরের বাঁধাঘাট এলাকায় পৌঁছায়। এ সময় অভিষেকের বাবা, মা এবং পরিবার-পরিজন, বন্ধু-বান্ধবসহ

নড়াইল পৌরসভার কাউন্সিলর শরফুল আলম লিটু, ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন খান ডালু, ক্রিকেট কোচ সৈয়দ মঞ্জুর তৌহিদ তুহিন, আওয়ামী লীগ নেতা হাফিজ খান মিলন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চল শাহারিয়ার মীম, সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

‘অভিষেক দাস’ বাংলাদেশের ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি’র জেলার আরেক উজ্জ্বল নক্ষত্র। তবে বাবা-মা, পরিবার-পরিজন ও বন্ধুদের কাছে ‘অরণ্য’ নামে বেশি পরিচিত। সেই অরণ্য বা ক্রিকেট বিশ্বের অভিষেক-ই গত ৯ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতের গুরুত্বপূর্ণ ৩ ইউকেট শিকার করে জয়ে বড় অবদান রাখেন।

অভিষেক এবার নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজে থেকে ‘ব্যবসায় শিক্ষা’ শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। এসএসসিতে ‘এ’ পেয়েছিল সে। অভিষেকদের বাড়ি নড়াইল শহরের চিত্রা নদীর পাড়ে বাঁধাঘাট চত্বরে। যে চিত্রা নদীতে সাঁতার কেটে, দুরত্বপনায় বেড়ে উঠেছেন ক্রিকেট বিশ্বের আরেক কিংবদন্তি নড়াইলের ‘কৌশিক’ তথা মাশরাফি বিন মর্তুজা। সেই চিত্রাপাড়ের ছেলে অভিষেক।

যিনি যুব বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট শিকার করে দলের জন্য বড় অবদান রাখেন। তার এই অবদানের জন্য আনন্দিত অভিষেকের বাবা-মা, পরিবার-পরিজন ও বন্ধুবান্ধবসহ নড়াইলবাসী। অভিষেককে অভিনন্দন জানিয়েছে ফেসবুকেও ঝড় তুলছেন নড়াইলসহ দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। অরণ্য তথা অভিষেকের বাবা ও মা বলেন, আমরা ভীষণ খুশি হয়েছি। যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

ও দলের জন্য ভবিষ্যতে আরও ভালো করবে- এই কামনা করি। অরণ্য (অভিষেক) আমাদের সোনার সন্তান মাশরাফির আদর্শে অনুপ্রাণিত। ও ক্রিকেটে বাংলাদেশের মুখ আরও উজ্জ্বল করবে বলে আমরা আশাবাদী। এদিকে ভারতের বিপক্ষে যুব বিশ্বকাপ বিজয়ের পর থেকে প্রতিদিন অভিষেকদের বাড়িতে বিভিন্ন পেশার মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। জেলা শহরসহ গ্রামাঞ্চলে সর্বত্র চলছে অভিষেক-বন্দনা। সবার মুখে একটিই কথা-ক্রিকেট বিশ্বের ‘জীবন্ত কিংবদন্তী মাশরাফি’র উত্তরসূরি আমাদের অভিষেক।

নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, ক্রিকেট তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপির শহরে অভিষেক উদীয়মান এক ক্রিকেটার। অভিষেক তার ধারাবাহিকতা রক্ষা করে দলের জন্য ভবিষ্যতে আরও ভালো করবে, এই কামনা করি। এছাড়া বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও যুব বিশ্বকাপের সাফল্যে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ফেসবুকে মাশরাফি লিখেছেন, ‘অভিনন্দন বাংলাদেশ। বিশেষ করে আমার শহরের ছেলে অভিষেক দাসকে।

এছাড়া রাকিবুল, শরিফুল, ইমন এবং দলের সব খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ-সবাইকে অভিনন্দন। তুমি দুর্দান্ত আকবর আলি। শুধু আবেগটা ধরে রাখতে পারলেই হবে। কী অসাধারণ সাফল্য। বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষের জন্য অনিন্দ্য সুন্দর মুহূর্ত।’

সূত্র: একুশে টেলিভিশন