সালমান শাহ কী, হাজারো সালমানকে বিট করছে শাকিব : ফারুক

মিঞা ভাই খ্যাত চিত্রনায়ক ও সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুকের একটি ভি’ডিও সাক্ষাৎকার সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভা’ইরাল হয়েছে। ১৫ সেকেন্ডের ওই ভি’ডিওতে ফারুক বলেন, ‘সালমান শাহ কী? আহামরি কি সে এমন, এতো কথা বলো, কী সে… তোমার হাজারো সালমান শাহকে বিট করে দিচ্ছে আমাদের শাকিব। কোথায় নিয়ে চলে গেছে শাকিব।

এগুলো ধরলে আমরা কিন্তু কথা বলতে পারি’। বাংলা সিনেমার একসময়কার তুমুল জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ কে নিয়ে কিংবদন্তি ফারুকের এমন মন্তব্যে ফেসবুক জুড়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। তার ভা’ইরাল হওয়া এই ভি’ডিওতে নেচিবাচক মন্তব্যই পড়ছে বেশি। ভি’ডিও’র ক্যাপশন হিসেবে লিখা হয়েছে- ‘ফারুক সাহেব নিজেই নিজের শ্রদ্ধার জায়গাটিকে ন’ষ্ট করলো।’

সেখানে লিটন সিকদার নামে একজন লিখেছেন- সালমান শাহকে এরকম কথা বলার কারণ, ফারুক সাহেবের ‘সুজন সখী’ ছবিতে তার চেয়ে বেশি দর্শক দেখছেন। এই হিংসার কারণে উনি আর সালমান শাহকে নিয়ে এ ধরনের কথা বলছে।

মানিক খান নামে একজন লিখেছেন- ‘ফারুক মিয়া উনার এই কথাগুলোর জন্য সবার কাছে নিন্দিত হয়ে গেছেন। উনি নিজেকে পচিয়ে দিয়েছেন। উনাকে আর মানুষ সম্মান করবে না। উনার বোঝা উচিত একজন সালমান শাহের মতো জনপ্রিয় হতে উনার আরেক জনম জন্ম নিলেও পারবেন কিনা সন্দেহ। ফারুক মিয়া হিংসুক মানুষ তাই আমাদের সবার প্রিয় নায়ক সালমান শাহের জনপ্রিয়তা কে ভয় পায়।’

এমডি সুমন লিখেছেন- ‘মামা ফারুক সাহেব হঠাৎ করে মরহুম সালমান শাহর প্রতি এত রে’গে গেলেন কেন? যেই শাকিব খান আমাদের কোনো ভাল কিছু উপহার দিতে পারে নাই, শাকিব খানের শুধু আছে অ্যা’কশন।’

১৯৯৩ সালে ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির মাধ্যমে ঢাকাই সিনেমায় অভিষেক হয় সালমান শাহর। মাত্র চার বছরের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে অভিনয় করেছেন ২৭টি চলচ্চিত্রে। তার অভিনীত ছবির মধ্যে রয়েছে কেয়ামত থেকে কেয়ামত, অন্তরে অন্তরে, দেন মোহর, তোমাকে চাই, বিক্ষো’ভ, বিচার হবে, চাওয়া থেকে পাওয়া, আনন্দ অশ্রু, আশা ভালোবাসা, জীবন সংসার, মহামিলন, স্বপ্নের পৃথিবী, স্বপ্নের ঠিকানা, এই ঘর এই সংসার, আঞ্জুমান, কন্যাদান, মায়ের অধিকার, প্রেম যুদ্ধ, স্নেহ, সত্যের মৃ’ত্যু নাই, সুজন সখী, তুমি আমার, প্রিয়জন, স্বপ্নের নায়ক, বুকের ভিতর আ’গুন, প্রেম পিয়াসী।

অল্প সময়ের জন্য পৃথিবীতে তার আগমন। খুব কম সময়ের মধ্যে অভিনয় দিয়ে কোটি ভক্তের হৃদয় জয় করেছিলেন। তিনি ক্ষণজন্মা নায়ক সালমান শাহ।

উল্লেখ্য, ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, ওই দিন শরতের সকালে সমকালীন ঢাকাই চলচ্চিত্র অঙ্গনে সব থেকে বড় শূন্যতা তৈরি করে বিদায় নিয়েছেন সালমান শাহ। যার পারিবারিক নাম শহীদ চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার ইমন। ১৯৭১ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মা নীলা চৌধুরী। সালমন ছিলেন পরিবারের বড় ছেলে।