ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন কক্সবাজারের প্রথম করোনা রোগী

কক্সবাজারে করোনাভাই’রাসে আক্রা’ন্ত ৭০ বছরের বৃদ্ধা শা’রীরিক অবস্থার উন্নতির দিকে। আজ বুধবার কক্সবাজারের প্রথম করোনাভা’ইরাসে আ’ক্রান্ত রো’গীকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন মাহবুবুর রহমান।

মাহবুবুর রহমান বলেন, করোনাভাই’রাসে আক্রা’ন্ত রোগীকে সুস্থ করে তোলার জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। নিয়মিত চিকিৎসায় তার সর্দি, জ্ব’র ও কাশি কমেছে। ডায়রিয়া নিয়ন্ত্রণে না এলেও চি’কিৎসা অব্যাহত রয়েছে। করোনায় স্বাস্থ্যগত উন্নতির যে স্তর, তাতে ওই বৃদ্ধা সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশা করা হচ্ছে। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, ‘কক্সবাজারের যে নারী প্রথম করোনা রোগী হিসেবে শ’নাক্ত হয়েছেন, তিনি সৌদি আরব থেকে ফিরেছেন। তার স্বাস্থ্যের নিয়মিত খোঁজ রাখছি। তার স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে।’

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, ‘করোনা নিয়ে সর্বস্তরের লোকজনকে সতর্ক থাকতে হবে। প্রয়োজন ছাড়া কোনোভাবেই বাড়ি থেকে হবেন না। দরিদ্র পরিবারের জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য এবং টাকা বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হবে।’প্রসঙ্গত, কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী এলাকার ওই বৃদ্ধা গত ১৩ মার্চ সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরেন। অসু’স্থ হলে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চি’কিৎসাধীন ছিলেন। তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রো’গ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছিল।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে সেই রিপোর্ট হাতে পাওয়া গেছে। রিপোর্ট পাওয়ার পরপরই ওই নারীকে চি’কিৎসা প্রদানকারী চিকিৎসক ও নার্সদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে গতকাল থেকেই ওই নারীর গ্রামের বাড়ি ও পাশে এলাকা লকডাউন করা হয়েছে। ওই নারী সৌদি আরব থেকে এসে চট্টগ্রামের যে বাড়িটিতে ছিলেন ওই বাড়িটিও লকডাউন করা হয়।