বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা দেবে সেনা মেডিকেল টিম

সাধারণ রোগীদের চিকিৎসাসেবা দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে মাঠে নামছে যশোরের সেনাবাহিনীর মেডিকেল টিম। আর করোনা আক্রা’ন্তের সংখ্যা যদি বৃদ্ধি পায় তাহলে তাদের চিকিৎসার জন্য যশোর সেনানিবাসের পাশে অস্থায়ী হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। রোববার (২৯ মার্চ) দুপুরে যশোরের জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে একটি জরুরি সভায় অংশ নেওয়ার পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন সেনাবাহিনীর ৮৮ ব্রিগেড কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমেদ কবীর।

করোনার প্রা’দুর্ভাব রোধে করণীয় নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জরুরি সভা করেন জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন ও সেনা কর্মকর্তারা। সভায় জনসমাগম কমানো, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও সচেতনতা বৃদ্ধিসহ চিকিৎসা কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা হয়। সভা শেষে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমেদ কবীর সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন। তিনি বলেন, ‘মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারছেন না। করোনা ছাড়াও নানা রোগে আক্রা’ন্ত আছেন মানুষ। যারা চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন না তাদের চিকিৎসার জন্য সেনা মেডিকেল টিম শিগগিরই কাজ শুরু করবে।

বৈঠকে উপস্থিত যশোর জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা লে. কর্নেল নেয়ামুল বলেন, ‘মসজিদ ও বাজারে জনসমাগম বেশি হচ্ছে। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে এ বিষয়টি নিয়ে গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা হয়েছে। ইমাম পরিষদের নেতা ও বাজার কমিটির নেতাদের সঙ্গে জেলা প্রশাসক বৈঠক করবেন। বিশেষ করে বাজার ও মুদি দোকান খোলার সময় নির্ধারণ করা যায় কিনা সেটি ভেবে দেখা হচ্ছে।’

ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ শফিউল আরিফ বলেন, ‘প্রতিদিন কন্ট্রোল রুমে অভিযোগ আসছে। সে অনুযায়ী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের পাঠানো হচ্ছে।’ সবাইকে ঘরে থাকতে তিনি বিশেষভাবে অনুরোধ করেন। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীনসহ জেলা, পুলিশ প্রশাসন ও সেনা কর্মকর্তারা।

সূত্র: পূর্বপশ্চিমবিডি