এখন পর্যন্ত ২০০০ সুবিধাবঞ্চিত পরিবারকে সাহায্য করেছি, আরো করার নিরলস প্রচেষ্টা চলছে : সাকিব

কারোনা ভাই’রাসের কারণে বিশ্বজুড়ে বেকার হয়েছে লাখ লাখ মানুষ। ইতিমধ্যেই বাংলাদেশকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে দেশের জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। এই তালিকায় নাম লেখালেন সাকিব আল হাসানও। নিজে কোয়ারেন্টাইনে থাকলেও ঠিকই করোনা আক্রা’ন্তদের সহায়তায় মাঠে নেমেছেন নিষে’ধাজ্ঞায় থাকা বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। নিজের গড়া ‘সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশনের’ মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিতদের সাহায্য করছেন তিনি।

এরইমধ্যে ‘মিশন সেইভ বাংলাদেশ’ প্রজেক্টের মাধ্যমে ২০০০ পরিবারকে সাহায্য করেছেন সাকিব। এর আগে করোনা মোকাবেলায় নিজেদের বেতনের অর্ধেক অর্থ দান করেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। নিম্নবিত্তের সহায়তায় সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে সাকিব বলেছেন, আমি খুবই বিশ্বাস করি আমরা সকলে একটা টিম হিসেবে কাজ করলেই কেবল এই দুর্যো’গ থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব।

এর আগে এক পোস্টে ‘মিশন সেইভ বাংলাদেশ’ নিয়ে তিনি লিখেছেন, মিশন সেইভ বাংলাদেশ প্রোজেক্টটির উদ্দেশ্য হলো– করোনাভাইরাসে প্রভাবিত নিম্নআয়ের এবং সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জীবিকার জোগান দেয়া। এখন পর্যন্ত ২০০০ সুবিধাবঞ্চিত পরিবারকে সাহায্য করেছে প্রকল্পটি। এ সংখ্যাকে বৃদ্ধি করতে নিরলস প্রচেষ্টা চলছে।

সাকিব আরও লিখেছেন, সারা দেশ এখন করোনার প্রকোপ রুখতে লড়ছে। প্রাণঘাতী এ ভাই’রাসের প্রাদু’র্ভাবে অসংখ্য সুবিধাবঞ্চিত মানুষ দিন গুনছেন কবে তাদের রোজগার আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। এ মানুষগুলোর প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে ‘দ্য সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন’ পদক্ষেপ নিয়েছে দেশ এবং সারাবিশ্বের বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংস্থা থেকে ফান্ড উত্তোলনের। এ অর্থ ব্যবহার করা হবে করোনার কারণে প্রভাবিত সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে সাহায্য করার জন্য।