করোনা সন্দেহে বগুড়ার আদমদীঘিতে ঢাকাফেরত স্বামীকে ঘরে ঢুকতে দেয়নি স্ত্রী

কেশরতা গ্রামে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এলাকায় আত’ঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ওই বাড়িতে লাল পতাকা উড়িয়েছে উপজেলা প্রশাসন। খবর পেয়ে সেখানে ছুটে যায় উপজেলা করোনাভাই’রাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ.কে.এম আব্দুল্লাহ বিন রশিদ এবং স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ডা. শহীদুল্লাহ দেওয়ানের নেতৃত্বে মেডিকেল টিম।

কেশরতা গ্রামের মৃ’ত মোজাম্মেল প্রামানিকের ছেলে কাবিল প্রমানিক (৩২) সোমবার সকাল ৬টায় ঢাকা থেকে বাড়িতে আসে। এরপর তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার প্রতিবেশীদের জানান, তার স্বামী জ্ব’র, সর্দি ও কা’শি আক্রা’ন্ত। অসুস্থ কাবিল প্রামানিক জানায়, তিনি ঢাকায় রাজ মিস্ত্রির কাজ করতেন। সেখানে থাকা অবস্থায় তাঁর শরীরে হালকা জ্ব’র ও স’র্দি কাশি হয়। এ কারণে বাড়িতে চলে আসি।

ডা. শহীদুল্লাহ দেওয়ান জানান, ওই ব্যক্তিকে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ১৪ দিন হোম কোয়ারান্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাদের ১৪ দিন খাবারের ব্যবস্থা করতে ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান ও স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল বারীকে অনুরোধ করা হয়েছে।

সূত্র: আমাদের সময়।