ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত উঠতি ফসল

কয়েকদিনের তীব্র তাপদাহের পর রাজধানীসহ বেশ কয়েকটি জেলায় শিলাবৃষ্টি ও ঝড়ের খবর পাওয়া গেছে। আজ (২ এপ্রিল) বিকেলে হঠাৎ করে নামা এই শিলাবৃষ্টি ও ঝড়ে জনমনে স্বস্তি ফিরে এলেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উঠতি ফসলের। এদিন সন্ধ্যার আগে রাজধানীর উত্তরা-এয়ারপোর্ট এলাকার সঙ্গে সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে শিলা বৃষ্টিতে আমের মুকুল ও উঠতি ফসলের বেশ ক্ষতি হয়েছে। শিলা বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ায় বেশ কিছু গাছপালা ভেঙ্গে যায়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার সদর, কুন্ডা, ভলাকুট, গোকর্ণ, পূর্বভাগ, হরিপুর, বুড়িশ্বর, গোয়ালনগর ও চাতলপাড় ইউনিয়নের বিভিন গ্রামে শিলা বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায়। এতে উঠতি ফসলের বেশ ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাসিন্দা প্রবীর দেব ও সামসুজ্জামান চৌধুরী সুমন বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে হঠাৎ করে আকাশ অন্ধকার করে পুরো এলাকায় ভূতুড়ে পরিবেশের সৃষ্টি হয়। এর কিছুক্ষণ পরেই শুরু হয় শিলাবৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়া।

দুই ঘন্টা ধরে চলা শিলা বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ায় বিভিন্ন ইউনিয়নের আমের মুকুল, বোরো ধান, সবজি বাগানসহ উঠতি ফসলের বেশ ক্ষতি হয়। এ ব্যাপারে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উপ-পরিচালক মোঃ রবিউল হক মজুমদার বলেন, নাসিরনগরে ঝড় ও শিলা বৃষ্টির কারণে ৩৪০ হেক্টর জমির বোরো ধান, ১৫ হেক্টর জমির আম ও ৫ হেক্টর জমির ভূট্টার খেত ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা কাজ করছেন। ক্ষয়ক্ষতির বিস্তারিত তথ্য পেতে আরো দু’একদিন সময় লাগবে বলেও জানান তিনি।-একুশে টেলিভিশন