বিয়ের পরপরই গৃহবন্দি; রান্নাটা শিখে ফেলেছেন সৌম্য

গত ফেব্রুয়ারিতে ধুমধাম করে বিয়ে করে ফেলেছেন জাতীয় দলের বিধ্বং’সী ওপেনার সৌম্য সরকার। জাতীয় দল থেকে এজন্য ছুটিও নিয়েছিলেন তিনি। বিয়ে শেষ হতে না হতেই দেশে চলে আসে করোনাভাই’রাস। সব ধরনের খেলাধুলা বন্ধ হয়ে গেছে। সৌম্য সরকার দম্পতি এখন গৃহবন্দি। এই সুযোগটা বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগিয়ে রান্না শিখে ফেলছেন সৌম্য। সোশ্যাল সাইটে তার পোস্ট থেকেই জানা গেল এই তথ্য।

নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে চারটি ভি’ডিও প্রকাশ করেছেন সৌম্য। ভি’ডিওতে দেখা যাচ্ছে, পাকা শেফের মতো ফ্রাইপ্যানের চারপাশে তেলটা গড়িয়ে নিচ্ছেন তিনি। পরোটা ভাজা হবে তাই এই আয়োজন। ভি’ডিওর ক্যাপশনে সৌম্য লিখেছেন, ‘এটাই আমার প্রথম রান্নার প্রচেষ্টা! ডিম পরোটার সঙ্গে মুরগি!’ একটি ভি’ডিওতে ডিম ভাজার প্রমাণও পাওয়া যায়। ভি’ডিও দেখে ভক্তরা মজার মজার মন্তব্য করছেন। একজন যেমন সৌম্যর স্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, ‘বিয়ের পরেই অত্যাচার শুরু। তীব্র নিন্দা জানাই।’

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজার সঙ্গে জাঁকজমকভাবে মালাবদল হয়ে যায় সৌম্যর। তাদের সময়টা এখন ভালোই কাটছে। বিশ্বের অনেক ক্রীড়াবিদরাই এখন ঘরের কাজ করছেন। স্ত্রী কিংবা মাকে সহায়তা করছেন। সোশ্যাল সাইটের কল্যাণে সেসব ভিডিও চলে আসছে প্রকাশ্যে। সৌম্য সরকার নিজের গরজেই রান্না করাটা শিখে ফেলছেন। সেইসঙ্গে শরীরচর্চা আর ফিটনেসের কাজও চলছে। করোনা চলে গেলেই শুরু হবে ক্রিকেট। সেজন্য নিজেকে প্রস্তুত রাখতে হবে তো।

সূত্র: কালের কণ্ঠ অনলাইন।