৫৪০ কিমি পথ গাড়ি চালিয়ে আট বছরের রোগীকে বাড়ি পৌঁছে দিলেন পিজি-র ডাক্তার!

গত ২৫ মার্চ রাতে হাসপাতালে ডিউটি সেরে বেরনোর সময় এসএসকেএম হাসপাতালের অ্যানাথেসিস্ট বাবলু সর্দারের চোখ পড়ে একটি পরিবারের ওপর। আট বছরের একটি ছোট মেয়ে ও তার বাবা-মা অ্যাম্বুলেন্স চালকের সঙ্গে অস’হায় দরদাম করছিলেন। বীরভূমের গ্রামে ফেরার চেষ্টা করেও পারছিল না হতদরিদ্র পরিবারটি। মেয়েটি এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিত্‍সার জন্য ভর্তি ছিল। গত ২৩ মার্চ ছুটি হয়ে যায় তার। কিন্তু ট্রেন-বাস বন্ধ থাকায় ফেরার গাড়ি যোগাড় করতে না পেরে হাসপাতাল চত্বরেই পড়েছিলেন তাঁরা।

অ্যাম্বুলেন্স চালক যে পরিমাণ টাকা দাবি করেন, তা দেওয়া সম্ভব ছিল না বীরভূমের একটি পাথর খাদানে কাজ করা ওই রাজেশ বাস্কের। ঘরে একা রয়েছে তাদের আরও একটি ছোট মেয়ে। পরিবারটি অসহায়তা বুঝে নিজেই তাঁদের গাড়ি চালিয়ে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বাবলু সর্দার। রাতের খাবার না খেয়েই রাত নটা নাগাদ রওনা দেন তিনি। ভোর তিনটে নাগাদ পৌঁছন বীরভূমের ওই গ্রামে। আগে কিছুদিন দুবরাজপুরে পোস্টিং ছিলেন তিনি। তাই রাস্তা খুঁজে পেতে খুব একটা অসুবিধে হয়নি।

অ্যাঞ্জেলা নামে ওই মেয়েটির পরিবার এতই গরীব যে ডাক্তারকে এক কাপ চা পর্যন্ত খাওয়ানোর সামর্থ্য হয়নি তাঁদের। তবে ওই চিকিত্‍সক যে তাঁদের কাছে ঈশ্বরের দূত, সেই কথা জানিয়েছেন বাবলু।-এই সময়