ফেরি থেকে কাপড় কিনে বউকে ঈদের ‘উপহার’ দিলেন মোস্তাফিজ

করোনাভাইরাস কারণে থমকে আছে বিশ্ব। বাংলাদেশও তার বিকল্প না। প্রতিদিন আক্রান্তের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এমন একটা সময়ে এই বছরের ঈদ টা আগের বছরের মতো আনন্দে কাটাতে পারবেন না ক্রিকেটাররা। এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায়ও যেতে পারবেনা তারা। আর তাই পছন্দের মতো শপিংও করতে পারবেন না ক্রিকেটাররা। এই যেমন শপিং করতে না পেরে স্ত্রীকে ফেরি থেকে কাপড় কিনে দিয়েছেন টাইগার তারকা ক্রিকেটার মোস্তাফিজুর রহমান।

করোনাভাইরাসের কারণে খেলা বন্ধ থাকায় আপাতত গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছেন বাঁহাতি এই পেসার। স্ত্রী সহ পরিবার নিয়ে সাতক্ষীরায় আছেন মোস্তাফিজ। সেখানে থেকে এবার ঈদটা কাটাবেন তিনি। কিন্তু প্রতি বছরের মতো এবার আর ঈদের শপিং করতে পারছেন না মোস্তাফিজ। আর নিজের স্ত্রীকে আহামরি কোন উপহার দিতে পারছেন না তিনি। তাই ফেরি থেকে কাপড় কিনে দিয়ে বউকে বলছেন এবারের ঈদটা কাটিয়ে দিতে।

তবে অনেকে আগের জামা কাপড় দিয়ে ঈদ করবেন চিন্তা করলেও সেই সুযোগ নেই মোস্তাফিজের। কারণ ৬ মাস আগে পছন্দের জিনিস কেনাকাটা করলেও তা রেখে এসেছেন ঢাকায়। সম্প্রতি এক গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের ঈদ শপিং নিয়ে এসব জানান মোস্তাফিজ।

২৪ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার বলেন,“বাড়ি আসার পর বাজারে যাই না। করোনার আগেই কেনা শেষ। কিন্তু সমস্যা হয়েছে, ছয় মাস আগে পছন্দের যা কিনেছিলাম, সব ঢাকায়। গ্রামে অনেকে কাপড় ফেরি করে। ওখান থেকে কাপড় কিনে দিয়েছি বউকে। বলেছি, এটা দিয়ে ঈদ পার করে দাও। আর যে পরিস্থিতি, কেনাকাটার মানসিকতা নেই। আগে বেঁচে নিই।”