“বাংলাদেশ থেকে আমি যে ভালবাসা ও সম্মান পেয়েছি তা আজীবন মনে রাখবো”– আফ্রিদি

করোনাভাইরাসে অর্থিকভাবে বিপদে পড়া মানুষদের সাহায্যে দেশের হয়ে টেস্টে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করা ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন মুশফিকুর রহিম। আর মুশফিকের ঐতিহাসিক সেই ব্যাটটি কিনে নিয়েছেন পাকিস্তানি সাবেক ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি। ‘স্পোর্টস ফর লাইফ’ ফেইসবুক পেজের লাইভে মুশফিকুর রহিম নিজেই জানিয়েছেন যে, ২০ হাজার ডলারে (বাংলাদেশী মুদ্রায় দাঁড়ায় প্রায় ১৭ লাখ টাকা) ব্যাটটি কিনে নিয়েছেন পাকিস্তানি এই ক্রিকেটারের ‘শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন’।

এরপর মুশফিক নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে শহীদ আফ্রিদির একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। সেখানে আফ্রিদি বলেন;“আসসালামু আলাইকুম মুশফিক, আপনি দেশের মানুষের জন্য যা করছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়। সত্যিকারের নায়করাই একাজ করতে পারে। আমরা সবাই মিলে খারাপ একটা সময় পার করছি। এ সময় আমাদের একে অন্যকে সাহায্য করা জরুরী যাতে করে এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারি। অতীতে বাংলাদেশে আমি যে পরিমানে ভালবাসা ও সম্মান পেয়েছি তা আমি সারা জীবন মনে রাখবো।”

“পাকিস্তানের জনগন ও শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে, আমি আপনার ব্যাটটা কিনে আপনার সঙ্গী হতে চাই এই পথ চলায়। আপনার জন্য আমার প্রার্থনা সব সময় থাকবে, আশা করছি আল্লাহ আমাদের সাহায্য করবেন এই মহামারী পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে। আপনার সাথে আবারো মাঠে আমার দেখা হবে তাড়াতাড়ি। ধন্যবাদ।”– যোগ করেন আফ্রিদি।

প্রসঙ্গত যে, প্রসঙ্গত যে, ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে এই ব্যাট দিয়ে অপরাজিত ২০০ রান করেছিলেন মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের পক্ষে যেটা প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির ঘটনা। আর সেই প্রিয় ব্যাটটি বিক্রি করে দিয়েছেন মুশফিক।