ইফতারের পূর্ব মুহূর্তে প্যা’রালাইজড শাশুড়িকে রাস্তায় ফে’লে গেল দুই পুত্রবধূ!

ফেনীর সোনগাজীতে প্যা’রালাইজড বৃদ্ধা (৭৫) শাশুড়িকে রাস্তায় ফে’লে গেছেন তার দুই পুত্রবধূ। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের সুজাপুর গ্রামে লোমি মিয়াজী বাড়ির পুত্রবধূরা এই ঘটনা ঘটায়। খবর পেয়ে এলাকার চেয়ারম্যান রবিউজ্জামান বাবু বৃদ্ধাকে উ’দ্ধার করে পুনরায় ঘরে তুলে দেন।

এলাকাবাসী জানায়, মৃত হোসেন আহম্মেদের স্ত্রী ফিরোজা বেগম (৭৫) প্যারালাইজডসহ কয়েকটি রোগে আক্রা’ন্ত হয়ে দীর্ঘদিন যাবত মানবেতর জীবনযাপন করছিলেন। তার দুই ছেলে মো. মোস্তফা ও মো. ফারুক হোসেন সৌদি প্রবাসী। দীর্ঘদিন ধ’রে মোস্তফার স্ত্রী পারভিন আক্তার ও ফারুকের স্ত্রী লিপি আক্তার তার সেবা যত্ন করলেও করোনা প’রিস্থিতিতে ঔষধ কেনা ও সেবাযত্ন অনেকটা বন্ধ করে দিয়েছেন।

শনিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে দুই পুত্রবধূ তাকে ফেনী-সোনাগাজী সড়কের নির্জণ স্থানে রেখে চলে আসে। ইফতারের পূর্ব মু’হূর্তে তিনি রাস্তায় বসে কা’ন্নাকা’টি করছেন দেখে স্থানীরা ইউপি চেয়ারম্যানকে খবর দেয়। চেয়ারম্যান নিজ দায়িত্বে বৃদ্ধাকে পঞ্চায়েত কমিটির মাধ্যমে তার বাড়িতে নিয়ে যান এবং পুত্রবধূদের কাছে এর কারণ জানতে চান।

পরে তারা ভুল স্বীকার করে শাশুড়িকে আবার ঘরে তুলে নেন। এরপর ইউপি চেয়ারম্যান এক মাসের খাদ্য সামগ্রী ও বৃদ্ধাকে নতুন শাড়ি কিনে দিয়ে ঘরে তুলে দেন এবং দুই ছেলেকে বিদেশে ফোন করে শাসিয়ে দেন। সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন