‘এই ঈদ-শপিং যেন জীবনের শেষ ঈদ-শপিং না হয়’

করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ মহামারিতে উদ্ভুত পরিস্থিতির মধ্যে ঈদ উপলক্ষ্যে মানুষ ঢাকা থেকে ব্যাপকভাবে গ্রামে ফিরছেন। বিষয়টির সমালোচনা করেছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ। তিনি বলেন, এই ঈদ যেন শেষ ঈদ না হয়। এইবারের শপিং যেন শেষ শপিং না হয়। রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনে মঙ্গলবার (১৯ মে) এক সংবাদ সম্মেলনে ড. বেনজীর আহমেদ সতর্ক বাণী উচ্চারণ করে এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, করোনা সংক্রমণের মধ্যে শহর ছেড়ে গিয়ে কেউ যেন গ্রামের বাড়িতে পরিবার কিংবা প্রতিবেশীর জন্য মৃত্যুদূত হয়ে না যাই। তিনি আরো বলেন, বর্তমান করোনা মহামারী সংকট সবাইকে উপলব্ধি করতে হবে। আসুন আমরা সবাই সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি। ঈদের কেনাকাটা ও নামাজে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান জানিয়ে পুলিশের মহাপরির্শক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, কপি পেস্ট হবে না, এক দেশ পিটিয়ে পিটিয়ে ঘরে ঢুকিয়েছে, আমরাও তো তাই করতে পারি না। আমরা শারীরিকভাবে আঘাত না করেই মানুষের সহায়তায় এ পর্যন্ত এসেছি।

এভাবেই করতে চাই। জনগণের পাশে থেকেই করতে চাই। বাংলাদেশের বাস্তবতায় বল প্রয়োগের সুযোগ নেই। আইজিপি আরো বলেন, যখন সামাজিক দূরত্ব দরকার তখন আমাদের মানতে হবে, এটা তো জোর করে মানানোর কিছু নেই। আমাদের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী আছে, তাই বলে কী আমরা বাংলাদেশকেই পুরো প্রান্তিক করে ফেলব? এজন্য লাইভ এবং লিভিং।

সূত্র: সময় নিউজ।