বাংলাদেশের পাগল সমর্থকদের নিয়ে গর্বিত তামিম ইকবাল

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল বিশ্বের এক নম্বর অথবা দুই নম্বর না হলেও বাংলাদেশের সাপোর্টাররা বিশ্বের এক নম্বর। ক্রিকেট নিয়ে এই দেশের মানুষের মধ্যে পাগলামি একটু বেশি। হোক সেটি ঘরোয়া ক্রিকেট অথবা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। বারবার হতাশ হলেও আবারও ক্রিকেটারদের সাপোর্ট করতে মাঠে ছুটে যায় ক্রিকেটপ্রেমীরা। যার কারণে অনেক সময় এই সাপোর্ট অভিশাপ হয়ে দাঁড়ায় ক্রিকেটারদের জন্য।

সন্তোষজনক পারফরম্যান্সের না করতে পারলে এই সাপোর্টার আবার কাল হয়ে দাঁড়ায় ক্রিকেটারদের। সাকিব থেকে শুরু করে তামিম ইকবাল সবাই পড়েছে এই সমর্থকদের রোষানলে। তবে এতকিছুর পরও বাংলাদেশের সমর্থকদের নিয়ে গর্বিত তামিম। তিনি মনে করেন, ক্রিকেট নিয়ে সমর্থকদের আবেগের বহিঃপ্রকাশ হিসেবেই সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

সম্প্রতি রমিজ রাজার সাথে আলাপকালে তামিম বলেন, ‘আমাদের সমর্থকরা খুব আবেগপ্রবণ। বাংলাদেশ ক্রিকেট পাগল দেশ। জিম্বাবুয়ে, ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা- যার বিপক্ষেই আপনি খেলুন না কেন, আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেললেই প্রচুর মানুষ এসে দলকে সমর্থন দেয়।’

তামিম বলেন, ‘আমরা এমন সমর্থক পেয়ে অবশ্যই ভাগ্যবান। তবে এজন্য সমালোচনাও অনেক বেশি হয়। ভালো না করলে সমর্থকরা অখুশি হন, সমালোচনা করেন। অবশ্য এটা হয়ত পেশাদার ক্রিকেটারের জীবনেরই অংশ। ভালো করলে তারা প্রশংসাও করেন, খারাপ করলে সেভাবেই সমালোচনা করেন। তবে আমরা সত্যিই অনেক ভাগ্যবান আর খুশি এমন সমর্থক পেয়ে।’ শুধু দেশেই নয়, তামিমের অনেক সমর্থক আছেন বিদেশেও। বিশেষ করে ভারত ও পাকিস্তানে তামিমের অনেক সমর্থক রয়েছেন। তাই এই দুই দলের বিপক্ষে খেলতেও পছন্দ করেন তামিম।

তিনি বলেন, ‘ভারত ও পাকিস্তানের মত দলের বিপক্ষে খেলতে সবসময় ভালো লাগে। বিশেষ করে ভারত, তাদের বিপক্ষে ভালো করলে রাতারাতি আপনি তারকা বনে যেতে পারেন। পাকিস্তানের ক্ষেত্রেও একই। দেশটিতে ক্রিকেট উন্মাদনা অনেক বেশি। তাদের বিপক্ষে ভালো করলে সেখান থেকে অনেক ভালোবাসা পাবেন।’