এই সময় সুস্থ থাকতে করলা খাওয়া জরুরি কেন?

একে তো গ্রীষ্মকাল। অন্যদিকে করোনার তাণ্ডব। বর্তমানে দিশেহারা সারা বিশ্ব। করোনাভাইরাস রোধে বারবার হাত ধোয়া, মাস্ক পরাসহ বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা দিচ্ছে নানা পরামর্শ। তবে এই সময় সব থেকে বেশি যেটা প্রয়োজন তা হচ্ছে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলা।  বিশেষজ্ঞদের মতে যাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি তাদের মৃত্যুর ঝুঁকি কম। এছাড়াও এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে উঠতে পারবেন। তাই এই সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে এমন খাবার খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

করলা বা তেতো খাবার এই সময় খুবই উপকারী। ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে প্রতিদিন খাবারের পাতে রাখুন তেতো খাবার। নিম পাতা বা করলা খেতে পারেন। এতে থাকা অ্যান্টিভাইরাল উপাদান শরীরকে বিভিন্ন রোগ-জীবাণুর সঙ্গে লড়তে সাহায্য করে। এছাড়াও করোলার রয়েছে বহুগুণ। জেনে নিন সেসব উপকারিতা সম্পর্কে-

> করোলায় প্রচুর বিটা ক্যারোটিন রয়েছে। এতে দৃষ্টিশক্তি ভালো থাকে।

> করলায় প্রচুর আয়রণ রয়েছে যা হিমোগ্লোবিন তৈরিতে সাহায্য করে।

> করোলায় পালংশাকের দ্বিগুণ ক্যালশিয়াম ও কলার দ্বিগুণ পরিমাণ পটাশিয়াম রয়েছে।

> ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ও হার্ট ভালো রাখার জন্য পটাশিয়াম প্রয়োজন।

> করলায় যথেষ্ট পরিমাণে ভিটামিন-সি রয়েছে। ভিটামিন সি ত্বক ও চুলের জন্য একান্ত জরুরি। ভিটামিন সি আমাদের দেহে প্রোটিন ও আয়রন যোগায়। ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধক ক্ষমতা গড়ে তোলে।

> ফাইবার সমৃদ্ধ করলা কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা কমায়। করলায় রয়েছে ভিটামিন-বি কমপ্লেক্স, ম্যাগনেসিয়াম, ফলিক এসিড, জিঙ্ক, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম।

> ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও এটি উত্তম। প্রতিদিন নিয়মিত করলার রস খেলে রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

সূত্র: এনডিটিভি