‘এটা কি তোর বাপের রাস্তা’ বলেই পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে পেটালেন সাব্বির

আম্পায়ারের সঙ্গে অসাদাচরণ ও দর্শক পেটানোর দায়ে কঠিন শাস্তি ভোগ করতে হয়েছিল জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাব্বির রহমানকে। তাতেও তিনি ক্ষান্ত হননি। এবার পেটালেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে। গতকাল রোববার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে ওসি জানান, বিকেল পৌনে ৫টার দিকে ক্রিকেটার সাব্বির রহমান প্রাইভেটকারে চড়ে নগরীর সাগরপাড়া এলাকায় তার বাড়ির কাছে পৌঁছান। এ সময় বাড়ির রাস্তার সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা বিভাগের গাড়ি দেখে তিনি গাড়িটি সরাতে বলেন। তবে পরিচ্ছন্নতাকর্মী বাদশা প্রতি উত্তরে বলেন, ‘আমাদের কাজই তো ময়লা সরানো। ময়লা নিয়েই চলে যাবো।’

কিন্তু সাব্বির পাল্টা ওই পরিচ্ছন্ন কর্মচারীকে বলেন, ‘এটা কি তোর বাপের রাস্তা।’ এ নিয়ে কথাকাটাকাটির জের ধরে পরিচ্ছন্ন কর্মচারী বাদশার সঙ্গে ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন সাব্বির। পরে অন্য পরিচ্ছন্ন কর্মচারীরা খবর পেয়ে ছুটে এলে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এরপর পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ওসি বলেন, ‘ক্রিকেটার সাব্বিরই অপরাধ করেছেন বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। তবে সন্ধ্যায় বিষয়টি স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযামুল আযিম মীমাংসা করে দেবেন।’

এ বিষয়ে ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম-উল-আজিম বলেন, ‘ক্রিকেটার সাব্বির বাংলাদেশের একটা তারকা খেলোয়াড়। সে যেটি করেছে অত্যন্ত গর্হিত একটি কাজ করেছে। তার বাবার বয়সের ওই কর্মচারীর গালে তিনটি চপেটাঘাত করেছে। এ ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে আমি নিজে দায়িত্ব নিয়ে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের বাড়িতে পাঠিয়েছি। পরে আমার ওয়ার্ডের সচিবকে দায়িত্ব দিয়েছে বিষয়টি মিমাংসার জন্য। রাতের মধ্যেই উভয়ের মধ্যেই বিষয়টি মীমাংসা হবে বলে আশা করি।’

এ বিষয়ে ক্রিকেটার সাব্বিরের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এর আগে রাজশাহী বিভাগীয় স্টেডিয়ামে এক দর্শককে পেটানোর অভিযোগে ছয় মাসের জন্য জাতীয় দল থেকে বহিস্কার হয়েছিলেন সাব্বির।-আমাদের সময়।