সংক্র’মণে ফ্রান্সকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ

দেশে ক্রমেই ভ’য়ংকর হয়ে উঠছে বৈশ্বিক মহামা’রি করোনা ভাই’রাস। সীমিত পরীক্ষার পরও প্রতিদিনই গড়ে ৩ হাজারের বেশি করোনা শনাক্ত হচ্ছে। আর এতে করে অনেকটা নিয়’ন্ত্রণে আসা ইউরোপের ফ্রান্সকেও ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ।

এতে করে আক্রা’ন্তের তালিকায় এক ধাপ এগিয়ে শীর্ষ ১৭-তে উঠেছে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশ। সংক্র’মণ এড়াতে জোন ভিত্তিক কিছু এলাকা লকডাউন করা হলেও, সারা দেশে তুলে নেয়া হয়েছে কড়াকড়ি। চলছে গণপরিবহন, অফিস, খোলা কল কারখানা। আর এতে করেই চলতি মাসের শেষের দিকে করোনা ভয়ংকর রূপ নিতে পারে বলে আশ’ঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ঘণ্টায় ৩ হাজার ২৭ জনের দে’হে করোনার সংক্র’মণ পাওয়া গেছে। এতে করে আক্রা’ন্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৪৫ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ গেছে আরও ৫৫ জনের। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ভাই’রাসটিতে ভুগে দেশে মৃ’ত্যু হয়েছে ২ হাজার ১৫১ জনের। যদিও সুস্থ হয়েছেন ৭৮ হাজারের বেশি রোগী।

অপরদিকে, ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত করোনার শিকার ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩৩৫ জন। মৃ’ত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ৯২০ জন। আশার কথা হলো, অন্যান্য দেশের তুলনায় প্রাণহা’নির হার কম বাংলাদেশে। যদিও উপসর্গ নিয়ে মৃ’ত্যু হয়েছে আক্রা’ন্তের তুলনায় অধিক। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া তথ্যমতে, এখন পর্যন্ত দেশের ৭৪টি ল্যাবে ৮ লাখ ৭৩ হাজার ৪৮০ নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে গত একদিনে ১৩ হাজার ৪৯১টি।

এদিকে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে আক্রা’ন্ত ও প্রাণ’হানির শীর্ষে ভারত। যেখানে গত চারদিনেই এক লাখ মানুষ করোনার শিকার হয়েছেন। দেশটিতে প্রতিদিনই প্রায় ২৫ হাজার মানুষ সংক্র’মিত হচ্ছেন। এতে আক্রা’ন্তের সংখ্যা ৭ লাখ ছাড়িয়েছে। প্রাণহা’নি বেড়ে সেখানে ২০ হাজার পেরিয়েছে। যদিও বেঁচে ফিরেছেন ৪ লাখের বেশি ভুক্তভোগী।

এরপরই পাকিস্তান। যেখানে ২ লাখ প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ করোনায় ভুগছেন। এর মধ্যে প্রাণহা’নি ঘটেছে প্রায় ৫ হাজার মানুষের। এরপরই বাংলাদেশ। করোনা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে এ অঞ্চলের শ্রীলংঙ্কা, মালয়েশিয়া ও ভুটানের মতো দেশগুলোতে।

এদিকে আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় দুপুর পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ১৭ লাখ ৬৪ হাজার ১৫৪ জন মানুষের দে’হে হানা দিয়েছে করোনা। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্র’মিত হয়েছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ৪৫৪ জন মানুষ। অপরদিকে, গত একদিনে প্রাণ গেছে ৩ হাজার ৬৯২ জনের। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ভাই’রাসটিতে ভুগে পৃথিবী ছেড়েছেন বিশ্বের ৫ লাখ ৪১ হাজার ২৩০ জন মানুষ। যদিও আক্রা’ন্তদের মধ্যে সাড়ে ৬৭ লাখের বেশি রোগী সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘা’তী করোনাভাই’রাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। দেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আ’ক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃ’ত্যু হয় ১৮ মার্চ। গত ১১ মার্চ করোনাভা’ইরাস সংক’টকে মহামা’রী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

সূত্র: একুশে টেলিভিশন