হিরো আলম আমার মর্যাদা বোঝে নাই, বললেন জলিল

একটি শোকে কেন্দ্র করে ঝামেলায় জড়িয়ে একে অপরের বিরু’দ্ধে মন্তব্য করে আসছিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান ও হিরো আলম। অনন্ত জলিল এগিয়ে আসেন তাদের মধ্যকার ঝামেলা মেটাতে। শুধু তাই নয়, হিরো আলমকে তার একটি শোতে ডেকে তাকে নিয়ে ছবি বানানোরও ঘোষণা দেন। সাইনিং মানি হিসেবে প্রদান করেন ৫০ হাজার টাকাও। সেই অনন্ত জলিল এবার ঘোষণা দিলেন হিরো আলমকে নিয়ে ছবি বানাবেন না তিনি। কারণ হিসেবে দেখান অশ্লি’ল ভি’ডিও প্রকাশ ও ও বিত’র্কিত বলে। ১৬ জুলাই জলিল হিরো আলমকে নিয়ে ছবি না বানানোর ঘোষণা দেন।

জলিল বলেন, কিছুদিন আগে আমি নিজ উদ্যোগে জায়েদ খানের সঙ্গে হিরো আলমকে মিল করিয়ে দিয়েছিলাম। প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও তাদেরকে নিয়ে একসঙ্গে লাঞ্চ করেছিলাম। মীমাংসা করে দেওয়ার পরেও একই বিষয় নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় হিরো আলম মন্তব্য করছেন যা মোটেও কাম্য নয় । আমার এত ব্যস্ততার মাঝেও আমি তাকে পাশে বসিয়েছিলাম, সে আমার মর্যাদা বোঝে নাই। আমার মর্যাদা যেহেতু বোঝে নাই তাই আমি চাই না ভবিষ্যতে তার দ্বারা আমার মর্যাদা ক্ষু’ন্ন হোক।

আমি চাচ্ছিলাম তার পাশে দাঁড়িয়ে তাকে সহযোগিতা করার, যাতে করে তার উপকার হয়। এ ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য মানুষের সঙ্গে আমার কাজ করা সম্ভব না। তাই আমি আর তাকে নিয়ে সিনেমা বানাবো না। পঞ্চাশ হাজার টাকা সাইনিং মানি যেটি দিয়েছি সেটি আমি চাইছি না। সেটি তাকে আমি দিয়ে দিলাম।

জলিলের এসব কথার বিরু’দ্ধেও কথা বলেছেন হিরো আলম। জানিয়েছেন, জায়েদ খানের বিরু’দ্দে সত্য কথা বলেছি বলে আমাকে ছবি থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। তবে আমি তাকে ফোন করে ছবিতে নেয়ার জন্য বলিনি। আর হিরো আলম এতোটা ফকির হয়ে যায়নি যে অনন্ত জলিলের ৫০ হাজার টাকা নিতে হবে। সে টাক আমি ফেরৎ দেবো।

সূত্র: সমকাল।