মৃ’ত্যুর পরেও বাঁচিয়ে গেলেন ৮ জনের জীবন

মানুষ মানুষের জন্য। এই কথাটার বাস্তবিক প্রয়োগ দেখা যায় না। কিন্তু কিছু মানুষ এমন কিছু করে যান যা তার মানবতা ও মানসিকতাকে সুউচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যায়। জী’বিত অবস্থায় তো বটেই, মৃ’ত্যুর পরও তারা মানুষকে সাহায্য করে যান।

ভারতের কেরালের যুবক অনুজিথ এমনই একজন মানুষ ছিলেন। মাত্র ২৭ বছর বয়সেই মোটরসাইকেল দু’র্ঘটনায় প্রা’ণ হা’রালেন অনুজিথ। কিন্তু এই ছোট জীবনে তিনি বাঁচিয়ে গিয়েছেন কয়েকশো প্রা’ণ। এমনকি, মৃ’ত্যুর পরও তিনি আটজনকে নতুন জীবন দিয়ে গিলেন।

গত ১৪ জুলাই কেরলের কোট্টারকারা এলাকায় মোটরসাইকেল দু’র্ঘটনায় আ’হত হন অনুজিথ। এরপর তাকে চিকিৎসার জন্য তিরুবনন্তপূরমে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। অনুজিতের ব্রেন ডেড ঘোষণা করেন চিকিতসকরা। কিন্তু মৃ’ত্যুর আগেই অনুজিথ স্ত্রী ও বোনকে তার অ’ঙ্গদানের ইচ্ছের কথা জানিয়ে গিয়েছিলেন।

সেই মতো অনুজিথের হৃ’দপি’ন্ড, কি’ডনি, অ’ন্ত্র, চোখ, লি’ভার, ও হাত অন্যের শরীরের প্রতিস্থাপন করা হয়। ৫৫ বছর বয়সী সানি থমাস নামে একজনের শরীরে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে অনুজিথের হৃ’দপিন্ড। নতুন জীবন পেয়েছেন সানি থমাস। আর এভাবেই এই পৃথিবীতে না থেকেও রয়ে গেলেন অনুজিথ।

সূত্র: কালের কণ্ঠ অনলাইন।